শিরোনাম
আগামীকাল সারা দেশে বিক্ষোভের ডাক,আসবে অবরোধও পাহাড় থেকে চীনে নারী পাচারকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে রাঙ্গামাটিতে মানববন্ধন প্রধানমন্ত্রীর নিকট পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এপিএ হস্তান্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ২৬ বছর পূর্তি উদযাপন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাইলে ঢাবিতে প্রবেশ করবে পুলিশ : বিপ্লব ‘জবাব ছাত্রলীগই দেবে’, কোটাবিরোধীদের রাজাকার স্লোগান নিয়ে কাদের আমেরিকা পালিয়েছেন ৪০০ কোটির পিয়ন আন্দোলনকারী-ছাত্রলীগ সংঘর্ষে উত্তপ্ত চট্টগ্রাম ঢাবিতে সাঁজোয়া যানসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশের অবস্থান ঢাবির হলে বহিরাগত অবস্থানে নিষেধাজ্ঞাসহ ৫ সিদ্ধান্ত

কে জানে বিজেপি সরকার ১৫ দিনও টিকে কিনা! : মমতা

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় রবিবার, ৯ জুন, ২০২৪
  • ৩৬ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির বিরুদ্ধে বড় জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। দলীয় প্রধান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট সরকারের দায়িত্ব নেওয়ার আগেই শুনিয়ে দিলেন অশনিসংকেত। তাঁর ইঙ্গিত, ইন্ডিয়া ব্লক শিগগিরই কেন্দ্রের লাগাম হাতে নিতে পারে। মমতা বলেছেন, ‘সরকার কখনো কখনো মাত্র একদিনের জন্য হয়!’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং তাঁর মন্ত্রীদের শপথ অনুষ্ঠানের এক দিন আগে শনিবার (৮ জুন) তৃণমূল সংসদীয় দলের বৈঠকের পর মমতা এমন কথাই বলেছেন। তিনি আরও বলেছেন, তাঁর দল শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেবে না। কারণ এই সরকার ‘অবৈধ ও অগণতান্ত্রিকভাবে’ গঠন করা হচ্ছে।

টানা দুইবার এককভাবে সরকার গঠনের পর এবার প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং বিজেপিকে মিত্রদের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। বিশেষ করে চন্দ্রবাবু নাইডুর টিডিপি এবং নিতীশ কুমারের জেডিইউ এখন বিজেপির জন্য অপরিহার্য হয়ে উঠেছে। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি পেয়েছে ২৪০টি আসন। সরকার গঠনে দরকার আরও কমপক্ষে ৩২টি।

২০১৪ সাল থেকে টানা দুইবার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করে সংসদে আধিপত্য বজায় রেখেছে বিজেপি। কিন্তু এবার সরকার গঠন করতে গিয়ে খাবি খাচ্ছে। ছোট দলের মন রক্ষা করতে সমঝোতায় যেতে হচ্ছে মোদিকে।

এই পরিস্থিতির জন্য খোঁচা দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যারা ৪০০টি (লোকসভা আসন) বলেছিল, তারা এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতাও পায়নি। নিজের মতো করে ভাববেন না যে, ইন্ডিয়া জোট (সরকার গঠনের) দাবি করেনি বলে কিছুই ঘটবে না। আমরা অপেক্ষা করছি এবং দেখছি, কারণ শেষ পর্যন্ত একটি নতুন ইন্ডিয়া সরকার হবে। ওদের কিছুদিন থাকতে দিন। সরকার তো কখনো কখনো মাত্র একদিন টিকে…যে কোনো কিছু ঘটতে পারে, কে জানে এই সরকার ১৫ দিনও টিকে কিনা!’

ভোটের মাঠে সগৌরবে ফিরে আসা কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টি, তৃণমূল কংগ্রেস এবং ডিএমকের মতো মিত্রদের শক্তিশালী ভূমিকার কারণে ইন্ডিয়া জোট ২৩২টি লোকসভা আসন পেয়েছে। তৃণমূল এখন সংসদের চতুর্থ বৃহত্তম দল। আসনসংখ্যার দিক থেকে শীর্ষ পাঁচটি দলের মধ্যে চারটিই ইন্ডিয়া জোটের। তবে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় আসন জোটের এখনো নেই।

এনডিএ মিত্রদের পক্ষ থেকে বিজেপিকে লিখিত সমর্থন দেওয়ার পরও কিন্তু ইন্ডিয়া জোটের নেতারা ইঙ্গিত দিয়ে যাচ্ছেন, তাঁরা সরকার গঠন করতে পারেন। এমনকি কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খড়্গে গত বৃহস্পতিবার জোটের বৈঠকের পরে বলেছিলেন, জনগণ যে বিজেপির শাসন আর চায় না সেই আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নে ইন্ডিয়া জোট উপযুক্ত সময়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions