শিরোনাম
পাহাড়ে ৬ মাসে ১১ খুন বান্দরবানে কেএনএফের আস্তানায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, নিহত ৩ রাঙ্গামাটির লংগদুতে সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ২ মরদেহ রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে স্কুলে ভর্তির টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেয়ার নির্দেশনা,ব্যাপক প্রতিক্রিয়া বিকল্প চিন্তা শেখ হাসিনার প্রতি নরেন্দ্র মোদির অবিরাম সমর্থনে বাংলাদেশ ক্ষুব্ধ অর্থনীতিকে ধারণ করার সক্ষমতা হারাচ্ছে ব্যাংকিং খাত : ফাহমিদা খাতুন ২৬ কোম্পানির বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা রাঙ্গামাটিতে ইউপিডিএফ সদস্যসহ ২ জনকে হত্যার প্রতিবাদে ২০ মে জেলায় অর্ধদিবস সড়ক ও নৌপথ অবরোধের ডাক রাঙ্গামাটির লংগদুতে সন্তু গ্রুপ কর্তৃক ইউপিডিএফ সদস্যসহ ২ জনকে গুলি করে হত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ রাঙ্গামাটিতে ব্রাশ ফায়ারে ইউপিডিএফের সদস্যসহ দুইজন নিহত

উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের ভোট কাল

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০২৪
  • ৩১ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রথম ধাপে ১৪১ উপজেলায় ভোট গ্রহণ আগামীকাল বুধবার। সকাল ৮টায় শুরু হবে ভোট গ্রহণ, চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এসব উপজেলায় চেয়ারম্যান, সাধারণ ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত ভাইস চেয়ারম্যান পদে ভোটের লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১ হাজার ৮৯১ জন প্রার্থী। নির্বাচনের জন্য ওই সব উপজেলায় ভোটের দিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

ইসির নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার তথ্য অনুযায়ী যাতায়াতের অসুবিধার জন্য দুর্গম এলাকায় ভোটের আগের দিন ব্যালট পাঠানোর জন্য সিদ্ধান্ত দিয়েছে ইসি। এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ইতোমধ্যে পাঠানো হয়েছে।

এবারের নির্বাচনে দুর্গম এলাকার ৪২৪ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের আগের দিন ব্যালট পেপার পাঠানো হবে। ১০টি জেলায় ২৪টি উপজেলার দুর্গম কেন্দ্রে ব্যালট আগের দিন পাঠানো হচ্ছে। উপজেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে কুড়িগ্রামের চিলমারী, রৌমারী, চর রাজীবপুর; মৌলভীবাজারের বড়লেখা, জুড়ী, কুলাউড়া; হবিগঞ্জের বানিয়াচং, আজমিরীগঞ্জ; ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর, সরাইল, সন্দ্বীপ; রঙ্গোমাটি সদর, কাউখালী, জুড়াছড়ি, বরকল; বান্দরবানের বান্দরবান সদর, আলীকদম; খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়ি, মানিকছড়ি, মাটিরাঙ্গা, রামগড়; সুনামগঞ্জের দিরাই, শাল্লা ও লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা। আর ১১ হাজার ১৩২ কেন্দ্রে ব্যালট যাবে ভোটের দিন সকালে।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আইন অনুযায়ী ভোট গ্রহণ শুরুর ৩২ ঘণ্টা আগে প্রচার বন্ধ করতে হয়। সেই হিসাব অনুযায়ী গতকাল মধ্যরাত থেকে বন্ধ রয়েছে প্রার্থীদের সব ধরনের প্রচার। এদিকে নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে ১৪ দিনের জন্য বৈধ অস্ত্র প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। নির্বাচন কমিশনের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ-সংক্রান্ত একটি পরিপত্র জারি করে। এতে বলা হয়েছে, নির্বাচনি এলাকায় ভোট গ্রহণের পূর্ববর্তী সাত দিন থেকে ভোট গ্রহণের পরবর্তী সাত দিন পর্যন্ত যেন লাইসেন্সধারীরা অস্ত্রসহ চলাচল না করেন কিংবা অস্ত্র বহন ও প্রদর্শন না করেন, সে জন্য জননিরাপত্তা বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

গত ২১ মার্চ নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রথম ধাপে ১৫২ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেয় ইসি। এসব উপজেলার মধ্যে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে চারটি উপজেলায় (বাগেরহাট সদর, মুন্সীগঞ্জ সদর, মাদারীপুরের শিবচর ও ফেনীর পরশুরাম) নির্ধারিত তিনটি পদেই একক প্রার্থী থাকা, নিরাপত্তাজনিত কারণে বান্দরবানের (রোয়াংছড়ি ও থানচি) দুই উপজেলার ভোট স্থগিত করাসহ বিভিন্ন কারণে ১০টি উপজেলায় ভোট হচ্ছে না। ফলে প্রথম ধাপে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা চলছে ১৪২ উপজেলায়। আর এ ধাপে ৯ জেলার ২২টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ করা হবে ইভিএম পদ্ধতিতে আর বাকি সব উপজেলায় ভোট হবে ব্যালট পেপারে।

ইসির তফসিল অনুযায়ী এরপর দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে ১৬০ উপজেলায়, তৃতীয় ধাপে ২৯ মে ১১২ উপজেলায় এবং সর্বশেষ চতুর্থ ধাপে ৫৫টি উপজেলায় ভোটের আনুষ্ঠানিকতা চলবে। এ ছাড়া দ্বিতীয় ধাপে ২৪টি উপজেলা, তৃতীয় ধাপে ২১টি ও চতুর্থ ধাপে দুটি উপজেলায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ভোট গ্রহণ করা হবে।

দেশের ৪৯৫টি উপজেলার মধ্যে এ পর্যায়ে ৪৭৬টি উপজেলায় চার ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে নির্বাচন কমিশন। আর ১৯টি উপজেলা পরিষদে নির্বাচনের এখনো সময় হয়নি। পরে সেসব উপজেলাসহ চার ধাপে যেসব উপজেলার ভোট নানা কারণে স্থগিত হবে, সেসব উপজেলার নির্বাচন করা হবে বলে জানিয়েছে ইসি।

দেড় লাখ আনসার-ভিডিপি সদস্য মোতায়েন

আগামীকাল বুধবার অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, ভোটকেন্দ্র ও ব্যালট বাক্সের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং ভোটদানে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে মোট ১ লাখ ৫৯ হাজার ৮৭৪ জন সদস্য মোতায়েন করেছে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী। গতকাল সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাহিনীটির সহকারী পরিচালক (ভিডিপি প্রশিক্ষণ) ও গণসংযোগ কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. রুবেল হোসাইন।

এবার দেশের ৫৯টি জেলার ১৪১টি উপজেলায় ১০ হাজার ৬০৫টি ভোটকেন্দ্রে প্রথম ধাপে নির্বাচন হতে যাচ্ছে। প্রতিটি নির্বাচন কেন্দ্রের নিরাপত্তায় মোট ১৩ জন বা ততধিক আনসার ও ভিডিপি সদস্য সোমবার (গতকাল) থেকেই দায়িত্ব পালন করছেন। তাদের মধ্যে একজন প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) ও দুজন সহকারী প্লাটুন কমান্ডারের (এপিসি) নেতৃত্বে ৬ জন পুরুষ ও ৪ জন মহিলা আনসার-ভিডিপি সদস্য রয়েছেন। কোনো কেন্দ্রে বুথ সংখ্যা ৬টির বেশি হলে বুথপ্রতি অতিরিক্ত আরও একজন করে আনসার-ভিডিপি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পিসি ও এপিসিরা (৩ জন) অস্ত্রসহ এবং আনসার-ভিডিপি সদস্যরা অস্ত্রবিহীন ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত থাকবেন। মোতায়েন করা সদস্যদের দায়িত্ব পালন তদারকের জন্য কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ আরও প্রায় দুই হাজার সদস্য মাঠপর্যায়ে দায়িত্ব পালন করছেন। তারা সবাই ৬ মে থেকে ১০ মে পর্যন্ত মোট পাঁচ দিনের জন্য মোতায়েন থাকবেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions