কেন্দ্রের নির্দেশ উপেক্ষা করে নির্বাচনে বিএনপির ৩৮ জন

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৪১ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপি। দলটির নীতিগত এই সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ তৃণমূলের বহু নেতা। তাই দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে বহু নেতা উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির ৪৯ জন চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে ১১ জন মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। নির্বাচন বর্জনের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩৮ জন। এর মধ্যে বিএনপির পদধারী নেতা ১৮ জন। বাকিরা বিএনপি নেতাদের আত্মীয়স্বজন ৯ জন ও দল থেকে বহিষ্কৃত নেতা। বিএনপি কেন্দ্রীয় দপ্তর সূত্রে জানা গেছে এ তথ্য।

জানতে চাইলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপি। এটা দলীয় সিদ্ধান্ত। সেজন্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনও বর্জনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কাজেই দলের দায়িত্বশীল যারাই উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হবেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক ভিপি মো. কামাল। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি শাহ মোহাম্মদ শামীম হোসেন চৌধুরী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মাস্টার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন। সোমবার দুপুরে সরাইল প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ আল রায়হান। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছেন সাবেক বিএনপি নেতা আশরাফ হোসেন (ডালিম), ভোলাহাট উপজেলায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোহাম্মদ বাবর আলী, উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আনোয়ারুল ইসলাম। নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা মহিলা দলের নেত্রী সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহুয়া পারভীন লিপি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি।

নাটোর সদর উপজেলার তেবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সাবেক নেতা গোলাম সারোয়ার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেননি। তিনি নাটোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন। অপরদিকে নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেননি উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি সরদার আফজাল হোসেন।

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির ময়মনসিংহ জেলা উত্তর বিএনপির সদস্য আব্দুল হামিদ এবং জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় সদস্য আবুল হাসনাত তারেক শেষদিনেও প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেননি। এ ব্যাপারে আব্দুল হামিদ বলেন, বিগত উপজেলা নির্বাচনের পূর্বেই আমি দল থেকে পদত্যাগ করেছি। সুনামগঞ্জের দিরাই ও শাল্লা উপজেলায় বিএনপির দুই শীর্ষ নেতা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হচ্ছেন শাল্লা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গণেন্দ্র চন্দ্র সরকার ও দিরাই উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান গোলাফ মিয়া। দুজনের মধ্যে কেউই মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি। এ ব্যাপারে শাল্লা উপজেলা বিএনপির সভাপতি গণেন্দ্র চন্দ্র সরকার ও দিরাই উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাফ মিয়া জানান, তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাপে তারা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা মাঠে তাদের সঙ্গে থাকবে বলে তারা আশাবাদী।

ময়মনসিংহের উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দাখিলকারী বিএনপি নেতা এমরান হাসান পল্লব প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেননি। পল্লব ফুলপুর পৌরসভা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সারোয়ার হোসেন।

এদিকে মৌলভীবাজারের বড়লেখায় টানা চতুর্থবারের মতো উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাহেনা বেগম হাছনা। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনি একক প্রার্থী ছিলেন। রাহেনা বেগম উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং মৌলভীবাজার জেলা মহিলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) প্রার্থী উপজেলা বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ মোহা. কামাল উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কায়সার আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে প্রার্থী বিএনপির বহিষ্কৃত নেত্রী মোসা. রেশমাতুল আরস।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions