শিরোনাম

শক্তিশালী সাংগঠনিক ভিত্তি রচনা করতে হবে : জামায়াতের আমির

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৬ মার্চ, ২০২৪
  • ৫২ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা. শফিকুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশের সবুজ জমিনে কুরআনকে বিজয়ী করতে সকল স্তরে শক্তিশালী সাংগঠনিক ভিত্তি রচনা করতে হবে।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের উদ্যোগে থানা মজলিসে শুরা ও কর্মপরিষদ সদস্যদের নিয়ে আয়োজিত শিক্ষাশিবিরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের সংগঠনের চলার পথটি মোটেই সহজ ছিল না। জন্মলগ্ন থেকেই বিভিন্ন কায়েমি স্বার্থবাদী গোষ্ঠী আমাদের অগ্রযাত্রাকে বারবার আটকে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। আমাদের সামনে হাজারো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলো। আলহামদুলিল্লাহ বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী তার ঐতিহাসিক দীর্ঘ পথচলায় নানাবিধ বাঁধা অতিক্রম করে সম্মুখে এগিয়ে চলেছে। দেশের মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, সকল ষড়যন্ত্র, প্রপাগান্ডা ও অপপ্রচারেও আমাদের অগ্রযাত্রাকে আটকাতে না পেরে অন্যায়ভাবে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতাকে ব্যবহার করে জামায়াতের শীর্ষ নেতাসহ অসংখ্য নেতাকর্মীদের হত্যা করে আমাদের ধ্বংসের অপতৎপরতা চালানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য একটাই আল্লাহর দেওয়া কুরআনের বিধান অনুযায়ী একটি ন্যায় ও ইনসাফপুর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠা করা। এজন্য জামায়াতে ইসলামী তার সকল প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে।

কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমির নূরুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি মুহা. দেলাওয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় শিক্ষা শিবিরে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী, কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমির আব্দুস সবুর ফকির।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের নায়েবে আমির অ্যাডভোকেট ড. হেলাল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি কামাল হোসাইন ও ড. আব্দুল মান্নান সহ মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্যবৃন্দ ও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

ডা. শফিকুর রহমান বলেন, আমরা শপথের কর্মী, আল্লাহর গোলামি করার জন্য আমরা আত্ম-নিবেদিত। এজন্য কুরআনের বিধানের আলোকে নিজেকে তৈরি করে দেশ সমাজ ও জাতি গঠনে আমরা প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবো। যারা সবসময় আমাদের বিরোধিতা করছেন, আমরা তাদেরকে আমাদের বন্ধু, ভাই-বোনের ন্যায় মনে করি। তাদের হেদায়াতের জন্য আমরা মহান রবের নিকট দোয়া অব্যাহত রাখবো। আমাদের মাঝে মাহে রামাদান মাস অতিবাহিত হচ্ছে। আসুন আমরা এই মাসের পবিত্রতা রক্ষা করি।

অনুষ্ঠানে দলটির সেক্রেটারি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ জামায়াত সারাদেশে জামায়াতের রোল মডেল হিসেবে আজ সুপরিচিত। এই মহানগরী থেকেই একামাতে দ্বিনের বিজয় পতাকা উড্ডীন হবে। আমাদের মাঝে রহমত, বরকত, নাজাতের সওগাত নিয়ে মাহে রামাদান উপস্থিত। এ মাসে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের ইবাদাতে বেশি বেশি আত্মনিয়োগ করতে হবে। এভাবেই আমরা আল্লাহর করুণা পেতে পারি আর আল্লাহ আমাদের প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে গেলেই কেবল আমাদের প্রকৃত সফলতা নিশ্চিত হবে।

মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান বলেন, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের প্রতিটি ফ্ল্যাট বাসা হবে আমাদের এক একটি কার্যালয়। সেই লক্ষ্য পূরণে থানার মজলিসে শুরা ও কর্মপরিষদ সদস্য দায়িত্বশীল ভাইদেরকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে নূরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, জামায়াতের একজন দায়িত্বশীল হিসেবে দায়িত্বের দাবি যথাযথভাবে উপলব্ধি করে ময়দানে তৎপর থাকতে হবে। সংগঠনের থানা ও ওয়ার্ডের মূল দায়িত্বশীল হিসেবে আমাদেরকে সংগঠন নির্ধারিত সকল কর্মসূচি পরিকল্পিতভাবে বাস্তবায়ন করার প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সংগঠনের প্রতিটি কর্মীকে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করে দুনিয়ার পরিবর্তন সাধন করার যোগ্যতা সম্পন্ন জনশক্তিতে পরিণত করতে হবে। পাশাপাশি আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যেই আমাদের যাবতীয় কর্মতৎপরতা বজায় রাখতে হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions