গবেষণা কেন্দ্র নেই ৩৬ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৬৯ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল কাজের অন্যতম একটি হলো গবেষণা। তবে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ৩৬টিতেই কোনো গবেষণা কেন্দ্র নেই। ইউজিসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এ ধরনের কেন্দ্র থাকলে গবেষণায় সুবিধা হয় বলে অভিমত শিক্ষকদের। তবে গবেষণার জন্য কেন্দ্রের চেয়ে গবেষণার মানসিকতাটা জরুরি বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. হাসিনা খান বলেন, গবেষণা কেন্দ্র থাকতেই হবে বিষয়টি এমন নয়। গবেষণা করার জন্য মানসিকতা থাকতে হবে, আগ্রহ থাকতে হবে। এটি হলেই তখন তারা যা যা লাগবে তা আদায় করে নিবে। একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিকসংখ্যক গবেষণাকেন্দ্রের চেয়ে সব ধরনের সাপোর্ট দেয় এরকম সেন্টারের প্রয়োজন আছে।

ইউজিসির সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন (৪৯তম) অনুযায়ী, ৫৩টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে ২০৩টি। সর্বাধিক ১২১টি গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে। এরপর ৫৮টি গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে ৫টি গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে। তিনটি করে গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে। দুটি গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

মাত্র একটি গবেষণা কেন্দ্র থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো- বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গোপালগঞ্জ এবং বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়।

অপরদিকে ৪৮তম প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৫০ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা কেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ২৪৩টি। সেই হিসাবে ২০২২ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা বাড়লেও কমেছে গবেষণা কেন্দ্রের সংখ্যা। কমার বড় কারণ হলো, ২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা কেন্দ্র দেখানো হয় ৩৯টি, যেগুলো এবার ইনস্টিটিউট হিসেবে দেখানো হয়েছে।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ২০২২ সালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি করে গবেষণা কেন্দ্র দেখালেও ২০২১ সালে কোনো ধরনের গবেষণা কেন্দ্র ছিল না। অন্যদিকে সমপরিমাণ করে কমেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা কেন্দ্র কমার বিষয়ে জানতে চাইলে ডেপুটি রেজিস্ট্রার রাজিব মাহমুদ সামিম পারভেজ বলেন, আর্টস কম্পিউটার সেন্টারকে আইসিটি সেলের সঙ্গে একীভূত করায় একটি গবেষণা কেন্দ্র কমেছে।

ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান বলেন, ‘শিক্ষকদের গবেষণা করার জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে। কিন্তু একজন শিক্ষককে বেশির ভাগ সময় ক্লাস পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। এ জন্য আমরা শুধু একটি রিসার্চ বেইজড ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার কথা বলেছিলাম।’

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions