শিরোনাম

নওয়াজ নয়, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন শেহবাজ শরিফ

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৬৩ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- পিএমএল–এন প্রধান নওয়াজ শরিফ তাঁর ভাই দলীয় সভাপতি শেহবাজ শরিফকেই প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য মনোনীত করেছেন। দলের তথ্য সচিব মরিয়ম আওরঙ্গজেব পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমকে এমনটিই জানিয়েছেন।

এ ছাড়া পিএমএল–এন সিনিয়র সহ–সভাপতি মরিয়ম নওয়াজকে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য মনোনীত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মরিয়ম আওরঙ্গজেবের বক্তব্য অনুযায়ী, নওয়াজ শরিফ মনে করেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেহবাজ শরিফকে এবং পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মরিয়ম নওয়াজকে নেপথ্যে থেকে সহায়তা করার পাশাপাশি দলীয় বিষয়গুলো সবচেয়ে ভালো দেখভাল করতে পারবেন।

জিও নিউজের সঙ্গে আলাপকালে মরিয়ম বলেন, ‘ভবিষ্যতে যে কোনো সরকারে ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে প্রতিটি রাজনৈতিক দলে কমিটি গঠন করা হচ্ছে।’

প্রধানমন্ত্রিত্ব চান না বিলাওয়াল, শুধু বাবাকে প্রেসিডেন্ট দেখতে চানপ্রধানমন্ত্রিত্ব চান না বিলাওয়াল, শুধু বাবাকে প্রেসিডেন্ট দেখতে চান

দলের নেতাদের সঙ্গে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠকের পর পিএমএল-এনের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি। পিএমএল-এনের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে বিলাওয়ালের সমর্থন দেওয়ার ঘোষণায় ধারণা করা হচ্ছিল নওয়াজ শরিফই হতে যাচ্ছেন পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। এটি হলে তিনি চতুর্থবারের মতো পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতেন। এখন জানা যাচ্ছে, তিনি ভাইকে প্রধানমন্ত্রী পদে মনোনীত করেছেন।

এদিকে পিপিপির কো–চেয়ারপারসন আসিফ আলি জারদারি বলেছেন, বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ঐক্য প্রয়োজন। আর সেই ঐক্য প্রক্রিয়ায় ইমরান খানে পিটিআই অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

নিজের দলকে ‘ইমরান খানের দল’ ঘোষণা দিলেন আল্লামা রাজা নাসিরনিজের দলকে ‘ইমরান খানের দল’ ঘোষণা দিলেন আল্লামা রাজা নাসির

তিনি বলেন, ‘এটা এমন নয় যে, আমরা পিটিআইকে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় থাকবে না। এটা উচিত এবং অন্য সব রাজনৈতিক শক্তির উচিত, আমাদের সঙ্গে কথা বলা। আমাদের অর্থনৈতিক ও প্রতিরক্ষা এজেন্ডা অভিন্ন হওয়া উচিত। আমাদের সাধারণ স্বার্থগুলো নিয়ে এগিয়ে যাওয়া উচিত। শরিফ এবং অন্যদের সফল করতে সবার সহযোগিতা করা উচিত যাতে আমরা পাকিস্তানকে সফল করতে পারি।’

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দেশটির জাতীয় নির্বাচনে কোনো দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠন নিয়ে একটি অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল। বিলাওয়ালের ঘোষণাটি সেই অচলাবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার সবচেয়ে জোরালো ইঙ্গিত বলে মনে করা হচ্ছে।

খাইবার পাখতুনখাওয়ায় জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে সরকার গঠন করবে পিটিআইখাইবার পাখতুনখাওয়ায় জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে সরকার গঠন করবে পিটিআই

নির্বাচনে ইমরান খানের দল পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সর্বোচ্চ ৯২টি আসন পেয়েছে। নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন জয় পেয়েছে ৭৫টি আসনে। আর বিলাওয়াল ভুট্টোর পিপিপি নিশ্চিত করেছে ৫৪টি আসন। এ অবস্থায় একটি জোট সরকার গঠনের জন্য পিপিপিসহ অন্য দলগুলোকে আহ্বান জানিয়েছিলেন পিএমএল-এনের নওয়াজ শরিফ।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions