শিরোনাম
বান্দরবানের সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমারের আরও ১৩ সীমান্তরক্ষী পালিয়ে বাংলাদেশে রাঙ্গামাটিতে সাংগ্রাই জল উৎসব অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়িতে আ.লীগ নেতার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা, সড়কে যান চলাচল বন্ধ ফরিদপুরে বাস-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ১৩ জনের নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে বারতে পারে মৃত্যুের সংখ্যা বৈশ্বিক স্বাধীনতা সূচকে ১৬৪ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪১ কঠোর অবস্থানে ইরান, হামলার পাল্টা হামলা হবে ভয়াবহ, জবাব দেয়া হবে কয়েক সেকেন্ডেে রাঙ্গামাটি ৪ উপজেলায় নির্বাচনে: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৩৭ জন টেস্ট পরীক্ষার নামে বাড়তি ফি আদায় করা যাবে না: শিক্ষামন্ত্রী বিশ্বকাপ নিয়ে বেশি প্রত্যাশার দরকার নেই বলছেন শান্ত বান্দরবানের ৪ উপজেলায় নির্বাচন: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৩২ জন

পুলিশকে নিরপেক্ষ রেখে মাঠে আসুন, কে জেতে দেখি: জয়নাল আবেদীন

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৭১ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রিরোট:- বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জাতীয় সংসদের সাবেক বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নাল আবেদীন ফারুক বলেছেন, ‘আমরা ধৈর্য ধারণ করেছি। যারা বিএনপিকে বলেন— (বিএনপি) হতাশ, সাংগঠনিক শক্তি নাই; একদিনের জন্য অনুরোধ জানাবো, পুলিশকে নিরপেক্ষ রেখে মাঠে আসুন। কে জেতে আর কে হারে, একটু দেখি। সেটা তো করবেন না। কারণ আপনাদের তো জনগণের সমর্থন নাই। তাই আজ যারা বিএনপিকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে কথা বলছেন, তাদের উদ্দেশে বলতে চাই— ইনশাআল্লাহ সময় আসবে, এসব কথার উত্তর অক্ষরে অক্ষরে দেওয়া হবে।’

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী নবীনদল কর্তৃক আয়োজিত ‘বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সব রাজবন্দীর মুক্তি’ দাবিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে জয়নাল আবেদীন ফারুক বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাহেব, বড় বড় সেতু তৈরি করেন। এগুলো দেশের কাজে আসুক আমরা চাই। সেতুর নামে যে লুণ্ঠন হচ্ছে, মেগা প্রোজেক্টের নামে যে কোটি কোটি টাকা লুণ্ঠন করে আপনারা বেগমপাড়া বানাচ্ছেন, মালয়েশিয়াতে সেকেন্ড হোম বানাচ্ছেন, ব্যাংককে ফ্ল্যাট কিনছেন; সেই হিসাব কি আপনি রাখেন? মোটেই রাখেন না। রাখেন শুধু একটা… হুমকি দিয়েছেন, কালো পতাকা মিছিল করতে দেওয়া হবে না, অনুমতি নাই। যদি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেন, তাহলে অনুমতির দরকার কী?’

তিনি বলেন, ‘৭ জানুয়ারি ভাইয়ে-ভাইয়ে ডামি নির্বাচন করেছেন আপনারা নিজেই। তাতে কিচ্ছু যায় আসে না। বাংলাদেশের চলমান আন্দোলনের একেকটা দাবি যতদিন না প্রতিষ্ঠা হবে, যতদিন না বাংলাদেশে আমার ভোট আমি দেবো; ততদিন বিএনপিসহ সমমনা দল সংগ্রামের পথে থাকবে। জেল-জুলুম দিয়ে, মামলা দিয়ে আপনারা বিএনপিকে ঘরে বসিয়ে রাখতে পারবেন না।’

সাবেক এই চিফ হুইপ বলেন, ‘পৃথিবীর ইতিহাস বলে স্বৈরাচার কোনোদিন পুলিশ দিয়ে গণতন্ত্রকামী মানুষদের দাবিয়ে রাখতে পারে না। তাই আজকে আপনাদের (সরকার) উদ্দেশে চাই— সময় প্রায় শেষ।’

অনুষ্ঠানে অংশ নেন গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুরও। তিনি এসময় সরকারকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘এই ডামি নির্বাচনে, ডামি সংসদের অধিবেশনের দিন গণতন্ত্রের পক্ষের শক্তি প্রতিবাদ হিসেবে যখন কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি দিয়েছিল, সেই কর্মসূচিতে তারা (সরকার) হায়েনার মতো সারা দেশে হামলা করেছে, গ্রেফতার করেছে। যতগুলো রাজনৈতিক দল কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি দিয়েছিল প্রত্যেকের উপরে তারা (সরকার) হামলা এবং লাঠি চার্জ করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকে দেশের পাঁচ বছরের শিশুও বোঝে, শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে যারা কথা বলছে, যারা ভিন্নমতের রাজনীতি করছে, কোনও কারণ ছাড়াই তাদের বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে, কর্মসূচি থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে, মিথ্যা মামলা দিচ্ছে, রিমান্ডে নিয়ে তাদের অত্যাচার করছে।’

মানববন্ধনে জাতীয়তাবাদী নবীন দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions