শিরোনাম
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন,প্রথম ধাপে বিনা ভোটে ২৬ প্রার্থী নির্বাচিত রাঙ্গামাটির ৪ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ রাঙ্গামাটিতে বৃহস্পতিবার সড়ক ও নৌপথ অবরোধ–ইউপিডিএফ পাহাড়ে আগর বাগান বাড়লেও বাজার ব্যবস্থাপনার অভাব মিটার নেই, সংযোগ নেই তবুও বিদ্যুৎ বিল ৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকা চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় কাপ্তাই সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ ‘রূপান্তর’ বিতর্ক: জোভান-মাহিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন খান ইউনিসের এক গণকবরেই মিলল ৩০০ লাশ কেন্দ্রের নির্দেশ উপেক্ষা করে নির্বাচনে বিএনপির ৩৮ জন বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতি: রুমা ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৭ জন কারাগারে

লিগ্যাল এইড অফিস, এ আসুন সেবানিন

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১১৯ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- প্রতিটি জেলায় জেলা জজ আদালতে একজন বিচারকের নেতৃত্বে একটি “জেলা আইনগত সহায়তা অফিস” আছে। আপনি যদি দরিদ্র, অসহায়, নারী, এতিম, বা অন্য কোন কারনে মামলা করতে অক্ষম হন, বিচার চাওয়ার আর্থিক ক্ষমতা না থাকে এ অফিস থেকে আপনার পক্ষে সরকারী খরচে আইনী সহায়তা দিয়ে থাকে। আপনার জন্য আইনি পরামর্শ, আইনজীবী নিয়োগ, আইনজীবীর ফি প্রদান, মামলার খরচ ইত্যাদি সহ যাবতীয় দায়িত্ব সরকারী তহবিল থেকেই এ অফিস বহন করে থাকে। আপনার অধিকার রক্ষায় এ অফিস সদা তৎপর।
আপনি হয়তো বলবেন আমিতো এ অফিসের সন্ধান জানিনা। হ্যাঁ ঠিক তাই। এ বিষয়টি মাথায় রেখেই এ অফিসের সেবা জনগণের কাছে পোঁছানোর জন্য উপজেলায় উপজেলা চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি কমিটি আছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সে কমিটির সচিব। আপনি ইউ.এন.ও. সাহেবের মাধ্যমে জেলা লিগেল এইড কমিটির চেয়ারম্যান তথা জেলা জজ বরাবর আইনগত সহায়তা পাওয়ার জন্য দরখাস্ত দিতে পারেন। দরখাস্তে আপনার মোবাইল নম্বর দিলে জেলা আইনগত সহায়তা অফিস আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।
আপনি হয়তো বলবেন এও কি সম্ভব? কী বা হবে সে অফিসে গিয়ে? সব সরকারী অফিসইতো এ রকম কত সেবার কথা বলে। হ্যাঁ, আপনি রোগটি ঠিক ধরেছেন। তবে এ অফিসের কাজের একটু খোঁজ নিন। আপনার ধারনা পাল্টে যাবে। আপনি অসহায় হয়ে এত দ্বারে দ্বারে না ঘুরে কেবল এ অফিসে আসুন। বিচার চাওয়ার অধিকারটি আপনি এ অফিস থেকেই নিশ্চিত করতে পারবেন।
আপনি বলবেন, এ সব কথার প্রমান কী? হ্যাঁ, প্রমান ছাড়া বলছিনা। আপনি একটু কষ্ট করে, সাহস করে এ অফিসে সরাসরি আসুন, তাও না পারলে ইউ.এন.ও. সাহেবের মাধ্যমে জেলা আইনগত সহায়তা অফিসে দরখাস্ত প্রেরন করতে পারেন।
আপনি হয়তো বলবেন, আপনি এত বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন কেন? হ্যাঁ, আমি বিজ্ঞাপন দিচ্ছি। কারন আমি যখন দেখি আপনি দরিদ্র, অসহায়, এতিম বা নারী হওয়া বা অন্য কোন কারনে যখন সমাজের শক্তিশালী কোন ব্যাক্তির কারনে অধিকার হারা অথচ আপনি কেবল জেলা আইনগত সহায়তা কার্যালয়ের তথ্যটি না জানার কারনে, অফিসটি না চেনার কারনে অধিকারটি রক্ষার বা ফিরে পাওয়ার জন্য অসহায়ভাবে নানা জনের কাছে ধর্ণা দিয়ে ক্লান্ত, নিজের মামলা চালানোর মতো কোন শক্তিই আপনার নেই, আপনার পক্ষে যখন আদালতে কেহ দাঁড়ায়না তখন বিচারক হিসেবে আমিও অসহায় বোধ করি। আপনার বক্তব্যটি আমার আদালতের সামনে আসছেনা। আপনার হাতের প্রমনাটি আমার সামনে উপস্থাপন হচ্ছেনা, তখন, ঠিক তখনই আমি বিচারক হিসেবে অসহায় বোধ করি। আপনার কান্না আমি রাস্তায় দেখি। হাঁটে, মাঠে, ঘাটে সর্বত্র আপনার কান্না শুনতে পাই। কিন্তু সে কান্নার আবেগ দিয়ে আমার বিচারের কলম চালানতো সম্ভব নয়। তাই আপনাকে, হ্যাঁ আপনাকেই আপনার কথা বলতে হবে আদালতে। আপনার পাশে তাই লিফ্টের মতো, স্ট্র্যাচারের মত, ক্র্যাচের মত বা অন্ধের যষ্ঠির মত কাজ করবে জেলা আইনগত সহায়তা অফিস।
আইনগত সহায়তা কার্যক্রমের সাথে জড়িত সকল বিচারক, আইনজীবীসহ সকল পর্যায়ের গণকর্মচারীদেরকে এবং আইনগত সহায়তা কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে অসহায়ের পাশে দাঁড়ানো প্রতিটি মানবিক মানবকে জানাচ্ছি শুভেচ্ছা। প্রেমের কবি, সাম্যের কবি, মানুষের কবি, অন্যায়ের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী কবি, জাতীয় কবি নজরুল ইসলামের ভাষায় গেয়ে যাই—
” মহা বিদ্রোহী রণ ক্লান্ত
আমি সেই দিন হবো শান্ত
যবে উৎপীড়িতের ক্রন্দন রোল
আকাশে বাতাসে ধ্বনিবেনা,
অত্যাচারীর খড়গ কৃপাণ
ভীম রণ ভূমে রণিবেনা।”
কার্টেসি: এ. এন. এম. মোরশেদ খান স্যার
স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) নোয়াখালী

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions