শিরোনাম
গুম-খুন-কারা নির্যাতিত বিএনপিস্বজনদের আহাজারি,বাঁচার অধিকার না থাকলে সবাইকে একসাথে মেরে ফেলুন তপশিল বাতিল চেয়ে ইসলামী আন্দোলনের ৩ প্রস্তাব মানবাধিকার নিয়ে হুঁশিয়ারি উড়িয়ে দেওয়া যাবে না স্বতন্ত্র আতঙ্কে নৌকা রাজনৈতিক ও নৈতিক বৈধতা ফিরে আসবে এমন নির্বাচন দরকার চরম সংকটে পরিবার চাকরি, ব্যবসা লাটে বাদ পড়লেন শ্বশুর-জামাতা বোর্ড পরীক্ষায় পার্বত্য চট্টগ্রামের পাসের হার হ্রাস পাওয়ায় পিসিপির উদ্বেগ প্রকাশ অবিলম্বে শিক্ষার মানোন্নয়ন নিশ্চিত করা ও শিক্ষক সংকট নিরসনের দাবি ভারতে মেরুকরণের অস্ত্র হতে পারে সিএএ এবার রাজপথে নামবে বিএনপির কারা নির্যাতিত নেতাদের পরিবারের সদস্যরা

গণতন্ত্র ফেরানো পর্যন্ত আন্দোলন চলবে: রিজভী

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় বুধবার, ৮ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৩৩ দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: গণতন্ত্র ফেরানোর লক্ষ্য অর্জন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। দেশব্যাপী তৃতীয় দফায় ৪৮ ঘণ্টা অবরোধ কর্মসূচির প্রথম দিনে বুধবার বিকালে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

রিজভী বলেন, দল যে কর্মসূচি দেবে আমাদের নেতাকর্মীরা সেই কর্মসূচি পালন করবে। আমাদের ঠিকানা হয় কারাগার না হয় রাজপথ। এর মাঝখানে আমাদের কিছু নেই, এর মাঝ দিয়ে আমাদের যাওয়ার কোনো পথ নাই। নিয়ে যেতে পারে কারাগারে, আমাদের নানাভাবে আঘাত করতে পারে, আমাদের অত্যাচার-নির্যাতন করতে পারে। আমরা সব কিছু বরণ করে এই উদ্বেল অভিযাত্রা অব্যাহত থাকবে গণতন্ত্র না ফেরানো পর্যন্ত।

ছাত্রদল ঢাকা মহানগর পূর্বের সদস্য সচিব আল-আমীনকে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তুলে নিয়ে গেছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, আমাদের একজন বলিষ্ট ছাত্রনেতা ঢাকা মহানগর পূর্ব ছাত্রদলের সদস্য সচিব আল আমীনকে এখন কোথায় রেখেছে, কীভাবে আছে আমরা তা জানি না। এ পরিস্থিতি প্রতিনিয়ত প্রতিদিন শেখ হাসিনার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং তাদের গোয়েন্দারা এই কাজগুলো করছে। এটি একটি সামগ্রিক নৈরাজ্য, ভীতির পরিবেশ তৈরি করা অর্থাৎ বিএনপির নেতাকর্মীরা যাতে রাস্তায় না নামে। কিন্তু তারা (সরকার) সেটাতে ব্যর্থ হবে।

রিজভী বলেন, সব ধরনের প্রতিকূলতা, সব ধরনের প্রতিবন্ধকতাকে উপেক্ষা করে নেতাকর্মীরা বুকে বুলেট বহন করে নিয়ে রাজপথে দাঁড়াচ্ছে, রাজপথে তারা দাঁড়াবে। যতক্ষণ পর্যন্ত না তাদের লক্ষ্যে গণতন্ত্র ফিরে আসে, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন ফিরে না আসে, ফিরে না আসে মানুষের অধিকার, যতক্ষণ পর্যন্ত না মানুষের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত না হয় ততক্ষণ পর্যন্ত এই সংগ্রাম, এই আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে পোশাকশিল্পে ন্যূনতম মজুরির দাবিতে আন্দোলরত শ্রমিকদের ওপর পুলিশ হামলায় এক নারী শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে রিজভী বলেন, এই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে গণতান্ত্রিক শক্তির ওপর যেভাবে আক্রমণ করানো হচ্ছে, রক্ত ঝড়ানো হচ্ছে, তাতে সরকারের আসকারা পেয়ে আরও উৎসাহিত হচ্ছে তারা। আজকে একজন নারী শ্রমিককে কত দুঃখ নিয়ে ন্যায্য মজুরির জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে তাকে জীবন দিতে হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে অবরোধ কর্মসূচিতে ৫১৫ জনের অধিক নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হয়েছে, ১৮টি মামলায় এক হাজার ৯২০ জন নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। গত ২৮ অক্টোবরের মহাসমাবেশের পর থেকে এই পর্যন্ত ১২ হাজার ৪৪৬ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার ও ৫৭৯ এর বেশি মামলা করা হয়েছে বলেও জানান রিজভী।

রিজভী বলেন, এত নিপীড়ন-নির্যাতন-নাশকতা সৃষ্টির মতো পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে আজ অবরোধ কর্মসূচির প্রথম দিন চলছে, কর্মসূচি সাফল্যমণ্ডিত হয়েছে। সারা দেশে কোনো দূরপাল্লার গাড়ি ছাড়েনি। যাত্রী পাওয়া যায়নি বলে গাড়ি ছাড়েনি। অর্থাৎ এই কর্মসূচিতে মানুষের জনসমর্থন রয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা-রাত, আগামীকাল বৃহস্পতিবার দিন-রাতেও অবরোধ কর্মসূচি চলবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions