বান্দরবানের থানচিতে নিখোঁজ চার শ্রমিকের সন্ধান পাওয়া গেছে

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৩ মার্চ, ২০২৩
  • ২৯৪ দেখা হয়েছে

বান্দরবান:- বান্দরবানে থানচি উপজেলার নতুন নির্মিত সড়কের ২২ কিলোমিটার লেক্রি সড়কে রাস্তার কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের সন্ত্রাসীদের ভয়ে পালিয়ে যাওয়া নিখোঁজ ৪ শ্রমিকদের মধ্যে ১জন গুলিবিদ্ধ ও ৩ জন শ্রমিক অক্ষত অবস্থায় ফিরে এসেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গতকাল বিকালে সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হন এ শ্রমিকরা। এরপর তাদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

প্রায় ১৮ ঘন্টার পরে নিখোঁজ ৪ শ্রমিকদের মধ্যে রংপুরে গঙ্গাচড়া থানার দক্ষিণ পানা পুকুর পাড়া বাসিন্দা মোঃ আব্দুল কুদুস (৩৬) কে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এবং একই এলাকার বাসিন্দা বিজয় চন্দ্র বর্মন (৩৭) ও সূর্য দাশ (৩১), চালক রুবেল (৩২) শ্রমিকদের ছেঁড়ে দিয়েছে পাহাড়ে থাকা সশস্ত্র বাহিনীরা।

এ ঘটনার ঘটনাস্থলে থেকে গতকাল সন্ধ্যায় এক ট্রাক গাড়িতে থাকার গুলিবিদ্ধ ড্রাইভার বান্দরবান পৌরসভা ১নং ওয়ার্ড, স্বর্ণমন্দির বালাঘাটা এলাকা আব্দুর রশিদের ছেলে জালাল হোসেন (৩০) ও একই এলাকার বসবাসরত সাবের আহম্মেদ ছেলে ফুরকান আলী (৪৫) হেলপার আহত উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, থানচির লিক্রিতে নতুন নির্মাণাধীন সড়কের জন্য ৩টি ট্রাকে করে ইট বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল শ্রমিকরা। পরে সড়কের ৪৫ কিলোমিটার এলাকা ইট পৌঁছে দেওয়া শেষে ফেরার পথে থামলক পাড়া নামক এলাকায় ট্রাককে লক্ষ্য করে গুলি চালায় সন্ত্রাসীরা।
এতে গতকাল ঘটনাস্থলে ১জন গুলিবিদ্ধ ও ১জন গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এ ঘটনার ৪ শ্রমিক নিখোঁজের ১৮ ঘন্টা পরে ১জন গুলিবিদ্ধ ও ৩ জন অক্ষত অবস্থায় ফিরে আসছেন।

এদিকে নিখোঁজ ৪ শ্রমিকের মধ্যে ফিরে আসার বিজয় চন্দ্র বর্মন (৩৭) বলেন, থানচি নতুন সড়কের আমরা গতকাল বিকেল ৩টায় ট্রাকের ইটগুলো ৪৫ কিলোমিটার জায়গাতে নামিয়ে থানচি বাজার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। ফেরার পথে ২২ কিলোমিটার নামক স্থানে শুরু করে ১৮ কিলোমিটার পর্যন্ত ট্রাকের লক্ষ্য করে অতর্কিত ভাবে হামলা করেন সন্ত্রাসীরা।

তিনি আরো বলেন, এ পর্যায়ে আমাদেরকে ধরে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেলে সকালে আনুমানিক সাড়ে ৯টায় ছেঁড়ে দেয়। ছেঁড়ে দেয়ার পর চিকিৎসার নিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চলে আসি আমরা।

থানচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ মেহেনাজ ফাতেমা বলেন, গুলিবিদ্ধ মোঃ আব্দুল কুদ্দুস শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুলি লেগেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে থানচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমদাদুল হক এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে থেকে গতকাল গুরুতর আহত অবস্থায় ২জনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার শেষে বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় নিখোঁজ ৪ শ্রমিক মধ্যে ১জন গুলিবিদ্ধ ও অক্ষত অবস্থায় ৩ শ্রমিক ফিরে আসছে। গুলিবিদ্ধ ১ শ্রমিকের প্রাথমিক চিকিৎসার শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions