শিরোনাম
গুম-খুন-কারা নির্যাতিত বিএনপিস্বজনদের আহাজারি,বাঁচার অধিকার না থাকলে সবাইকে একসাথে মেরে ফেলুন তপশিল বাতিল চেয়ে ইসলামী আন্দোলনের ৩ প্রস্তাব মানবাধিকার নিয়ে হুঁশিয়ারি উড়িয়ে দেওয়া যাবে না স্বতন্ত্র আতঙ্কে নৌকা রাজনৈতিক ও নৈতিক বৈধতা ফিরে আসবে এমন নির্বাচন দরকার চরম সংকটে পরিবার চাকরি, ব্যবসা লাটে বাদ পড়লেন শ্বশুর-জামাতা বোর্ড পরীক্ষায় পার্বত্য চট্টগ্রামের পাসের হার হ্রাস পাওয়ায় পিসিপির উদ্বেগ প্রকাশ অবিলম্বে শিক্ষার মানোন্নয়ন নিশ্চিত করা ও শিক্ষক সংকট নিরসনের দাবি ভারতে মেরুকরণের অস্ত্র হতে পারে সিএএ এবার রাজপথে নামবে বিএনপির কারা নির্যাতিত নেতাদের পরিবারের সদস্যরা

আওয়ামী লীগ ত্রিশটির বেশি আসন পাবে না: বরকত উল্লাহ বুলু

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ২৪৪ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, আজকে এক পরিবার থেকে ৬০ জন এমপি আছেন বাংলাদেশে। এইটা পৃথিবীর ইতিহাসে নাই। নিরপেক্ষ কমিশনের অধীনে ভোট হলে সারাদেশে আওয়ামী লীগ ত্রিশটিরও বেশি আসন পাবে না। তাই বাংলাদেশের মানুষের একটাই দাবি, আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দিবো। এই দাবিতে আন্দোলন সংগ্রামে আমরা ১৭ জন ভাইকে হারিয়েছি। তারা বুকের তাজা রক্ত দিয়েছেন এই আন্দোলন করতে যেয়ে। আজকে আমরা যদি শেখ হাসিনার পতন ঘটাতে না পারি, তাহলে তাদের রক্ত বৃথা যাবে। তাদের রক্তের ঋণ আমরা শোধ করতে পারব না।

বিএনপি ঘোষিত ১০ দফা দাবি আদায়ে যুগপৎ কর্মসূচির অংশ হিসেবে ফরিদপুর বিভাগীয় গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বরকতউল্লাহ বুলু একথা বলেন। শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে ফরিদপুর শহর থেকে ছয় কিলোমিটার দূরে কোমরপুর এমএ আজিজ ইনস্টিটিউশন মাঠে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, বিগত ১৪ বছরে এই আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ১৪ লক্ষ কোটি টাকা এই দেশ থেকে পাচার হয়েছে। আজকে একটি অবাধ নিরপেক্ষ কমিশনের অধীনে ভোট হলে সারাদেশে আওয়ামী লীগ ত্রিশটিরও বেশি আসন পাবে না।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উদেষ্টা জহিরুল হক শাহাজাদা মিয়া বলেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ডাকে মুক্তিযুদ্ধে গেছি, দেশ স্বাধীন করেছি। এখন তারেক রহমানের নেতৃত্বে ১০ দফা বাস্তবায়ন করে দেশে গণতন্ত্র কায়েম করবো। হাসিনার নেতৃত্বে এ দেশে কোন নির্বাচন হবে না।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ইসলাম রিংকু বলেন, ১০ দফা মানতে হবে, নির্দলীয় সরকার দিতে হবে। এ সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে তবেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে। বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, ওবায়দুল কাদের আগে বলতেন খেলা হবে খেলা হবে। এখন বলেন ভুয়া ভুয়া। ওনার মাথায় রোগ দেখা দিয়েছে।

মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এএফএম কাইয়ুম জঙ্গির সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান বলেন, নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক সংসদ সদস্য শাহ মো. আবু জাফর, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সৈয়দ মোদাররেস আলি ঈসা, মহিলা দলের যুগ্ন সম্পাদক চৌধুরী নায়াব ইউসুফ, যুবদলের সাবেক সহ-সভাপতি মাহবুবুল হাসান ভুঁইয়া পিংকু, জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক আজম খান ও আফজাল হোসেন খান পলাশ, জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক আজম খান ও আফজাল হোসেন খান পলাশ, রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব কামরুল আলম, শরীয়তপুর জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম, গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক মো. রফিকুজ্জামান, প্রমুখ।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব একে কিবরিয়া স্বপন ও জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক জুলফিকার হোসেন জুয়েল। দুপুর ২টা থেকেই সমাবেশ উপলক্ষে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে এসে সমাবেশে যোগ দেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions