শিরোনাম
হাটহাজারীতে বাস-সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ২ প্রধানমন্ত্রীকে মান্না- কোন সাদা চামড়ার লোক আপনার কাছে পার্বত্য চট্টগ্রাম চায়? আগামী বছর এসএসসি পরীক্ষা নতুন নিয়মে হবে : শিক্ষামন্ত্রী ৮০ টুকরো করা হয় এমপি আজীমের দেহ, ‘কসাই’ জিহাদ পান ৫ হাজার রাত ৯টার পর রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড় রিমাল, ৩ নম্বর সতর্কসংকেত ‘রাতেই আসতে পারে ১০নং মহাবিপদ সংকেত’ সিরিয়াল কিলার এরশাদ শিকদারকেও ছাড়িয়ে গেছেন শিমুল ভূঁইয়া! লংগদুতে প্রতিদ্বন্দ্বী চার প্রার্থীর তিনজনই আ. লীগ নেতা,সভা-সেমিনারে হাসিমুখে,নির্বাচনে তারা প্রতিদ্বন্দ্বী রাইসির হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত,যেসব তথ্য উঠে এসেছে তদন্ত প্রতিবেদনে কাজী নজরুলের কবিতা ও গান স্বৈরাচারবিরোধী সংগ্রামে সাহস যুগিয়েছে -মির্জা ফখরুল

জানুয়ারি ২৩ সালে সড়ক, রেল ও নৌপথে ঝরল ৬৪২ জনের প্রাণ

জানুয়ারি ২৩ সালে সড়ক, রেল ও নৌপথে ঝরল ৬৪২ জনের প্রাণ
  • আপডেট সময় শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৩০১ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- সারাদেশে গত জানুয়ারিতে সড়ক, রেল ও নৌপথে সর্বমোট ৬৫০টি দুর্ঘটনায় ৬৪২ জন নিহত ও ৯৭৮ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে ৫৯৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৮৫ জন নিহত ও ৮৯৯ জন আহত হয়েছে। একই সময়ে রেলপথে ৪৪টি দুর্ঘটনায় ৪৬ জন নিহত ও ৭৮ জন আহত হয়েছে। এ ছাড়া নৌপথে ১৩টি দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত, ১ জন আহত ও ৬ জন নিখোঁজ হয়েছে। এ মাসে ২১৪টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২০৫ জন নিহত ও ১১৪ জন আহত হয়েছে।

আজ শনিবার সকালে প্রকাশিত বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির দুর্ঘটনা মনিটরিং সেলের দুর্ঘটনা পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। সংগঠনের মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনটি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়।

দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদপত্রে প্রকাশিত সড়ক, রেল ও নৌপথে দুর্ঘটনার সংবাদ পর্যালোচনা করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে, ২০২২ সালের জানুয়ারির চেয়ে ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে সড়কে দুর্ঘটনা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়লেও প্রাণহানি ৪ দশমিক ৬ শতাংশ কমেছে। তবে আহতের সংখ্যা ১০ দশমিক ০৪ শতাংশ বেড়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সড়কে দুর্ঘটনায় আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে ২০৬ জন চালক, ১০৯ জন পথচারী, ৩৫ জন পরিবহন শ্রমিক, ৫৩ জন শিক্ষার্থী, ১০ জন শিক্ষক, ১৩ জন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, ১১৫ জন নারী, ৬২ জন শিশু, ৫ জন সাংবাদিক, ১ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, ২ জন আইনজীবী ও ৩ জন প্রকৌশলী ও ১৪ জন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীর পরিচয় মিলেছে।

এতে আরও বলা হয়, উল্লেখিত সময়ে দুর্ঘটনাকবলিত মোট ৮১৬টি যানবাহনের পরিচয় মিলেছে, যার ১২ দশমিক ৫ শতাংশ বাস, ২৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ ট্রাক-পিকাপ-কাভার্ডভ্যান ও লরি, ৫ দশমিক ০২ শতাংশ কার-জীপ-মাইক্রোবাস, ৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ সিএনজিচালিত অটোরিক্সা, ২৭ দশমিক ৩২ শতাংশ মোটরসাইকেল, ১৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ ব্যাটারিচালিত রিক্সা ও ইজিবাইক, ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ নছিমন-করিমন-মাহিন্দ্রা-ট্রাক্টর ও লেগুনা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, মোট দুর্ঘটনার ৫১ দশমিক ৬০ শতাংশ পথচারীকে গাড়ি চাপা দেওয়ার ঘটনা, ২২ দশমিক ২৫ শতাংশ মুখোমুখি সংঘর্ষ, ১২ দশমিক ৪৭ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে, ১১ দশমিক ৯৭ শতাংশ বিবিধ কারণে, দশমিক ৬৭ শতাংশ যানবাহনের চাকায় ওড়না পেচিয়ে এবং ১ দশমিক ০১ শতাংশ ট্রেন-যানবাহন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার ধরন বিশ্লেষণে দেখা গেছে, দুর্ঘটনার ২৯ দশমিক ৫১ শতাংশ জাতীয় মহাসড়কে, ৩৮ দশমিক ৬১ শতাংশ আঞ্চলিক মহাসড়কে, ২৪ দশমিক ৪৫ শতাংশ ফিডার রোডে সংঘটিত হয়েছে। এছাড়াও সারা দেশে সংঘটিত মোট দুর্ঘটনার ৫ দশমিক ২২ শতাংশ ঢাকা মহানগরীতে, ১ দশমিক ১৮ শতাংশ চট্টগ্রাম মহানগরীতে, ১ দশমিক ০১ শতাংশ রেলক্রসিংয়ে সংঘটিত হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions