খেলা হবে আন্দোলনে-নির্বাচনে, বিএনপিকে ওবায়দুল কাদের

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ২৭৭ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচনে প্রমাণ হবে, কাদের পায়ের তলায় মাটি আছে, আর কাদের নাই।’ এ সময় তিনি বিএনপির উদ্দেশে বলেন, ‘খেলা আন্দোলনে-নির্বাচনে হবে। আমাদের নেতা-কর্মীরা রেডি।’

বুধবার রাজধানীর যাত্রাবাড়ী পার্কে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, নৈরাজ্য, অপরাজনীতি ও অব্যাহত দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনাদের পৃথিবী ক্রমেই ছোট হয়ে যাচ্ছে। আরও ছোট হয়ে যাবে। বিএনপির এই নীরব মিছিলের দৈর্ঘ্য কমে প্রস্থে বেড়ে যাচ্ছে। খেলা আন্দোলনে, নির্বাচনে হবে। আমাদের নেতা-কর্মীরা রেডি। নির্বাচনে প্রমাণ হবে, কাদের পায়ের তলায় মাটি আছে, আর কাদের নাই। নির্বাচনে আসুন। সেখানে জনগণ ভোট দিয়ে জনপ্রিয়তা যাচাই করবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি আজকে বলে, সরকার নাকি ভয় পেয়ে গেছে। সরকার ভয় পেয়েছে, না আপনারা ভয় পেয়েছেন? আপনার সরকারের পতনে বিক্ষোভ থেকে নীরব পদযাত্রায় চলে গেছেন। আমরা শান্তি সমাবেশ শুরু করেছিলাম, এখনো শান্তিতেই আছি। তাহলে ভয় পেয়েছে কারা?’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নাকি মাগুরার দাদা হবে। দাদা-নানা কিছুই হয়নি। নির্বাচন হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে। এক কেন্দ্রে একটু হাতাহাতি হয়েছে, কিন্তু এ বাদে সব জায়গায় সুষ্ঠু নির্বাচন। এই নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও গণতন্ত্র বিজয়ী হয়েছে।’

সমাবেশে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত সরকারের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে চায়। কিন্তু আমরা করোনা, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেও অর্থনীতির অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছি। আন্দোলন আন্দোলন করে লাভ নাই। আপনাদের খেলা ১০ ডিসেম্বরেই শেষ হয়ে গেছে।’ এ সময় আগামী নির্বাচনে অংশ নিয়ে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য বিএনপিকে আহ্বান জানান তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি বলেন, ‘আওয়ামী লীগকে হুমকি দিয়ে কোনো লাভ নাই। আওয়ামী লীগ ক্যান্টনমেন্টের দল না। হিমালয়কে ধাক্কা দিলে আপনারাই ব্যথা পাবেন। দেশে অশান্তি করবেন না। করলে যেভাবে যুদ্ধাপরাধীদের পরাজিত করেছি, সেভাবেই আপনাদের সাইজ করা হবে।’

সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায়, মির্জা আজম, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions