শিরোনাম
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন,প্রথম ধাপে বিনা ভোটে ২৬ প্রার্থী নির্বাচিত রাঙ্গামাটির ৪ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ রাঙ্গামাটিতে বৃহস্পতিবার সড়ক ও নৌপথ অবরোধ–ইউপিডিএফ পাহাড়ে আগর বাগান বাড়লেও বাজার ব্যবস্থাপনার অভাব মিটার নেই, সংযোগ নেই তবুও বিদ্যুৎ বিল ৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকা চুয়েটের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় কাপ্তাই সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ ‘রূপান্তর’ বিতর্ক: জোভান-মাহিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন খান ইউনিসের এক গণকবরেই মিলল ৩০০ লাশ কেন্দ্রের নির্দেশ উপেক্ষা করে নির্বাচনে বিএনপির ৩৮ জন বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতি: রুমা ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৭ জন কারাগারে

ডামি সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে : ইসলামী আন্দোলন

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৭৫ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রির্পোট:- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, ভাষা আন্দোলনের চেতনায় ডামি সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। বাংলাদেশের মানুষ ভাষার অধিকার আদায়ের জন্য জালিমের বুলেটের সামনে নিজেদের জীবন বিলিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, ১৯৫২ সালের ছাত্র জনতার এ আত্মত্যাগ যুগে যুগে বাংলাদেশি মানুষকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন করতে অনুপ্রাণিত করেছে। বাংলাদেশের মানুষ কল্যাণ রাষ্ট্র গঠনের জন্য অবৈধ ডামি সরকারকে বিতাড়িত করে জনগণের ভোটের অধিকার ও শিক্ষা কারিকুলাম পরিবর্তন করার জন্য পীর সাহেব চরমোনাইর আপসহীন নেতৃত্বে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পুরানা পল্টনস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মজলিসে আমেলার সভায় এসব কথা বলেন।

মাওলানা ইউনুছ আহমাদ এমপিওভুক্ত স্কুল মাদ্রাসার রমজানের নির্ধারিত ছুটি বাতিলকে ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করে ছুটি বহাল রাখার দাবি জানান।

ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব বলেন, পাওনা টাকা চাওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলের ক্যান্টিন মালিককে মেরে দাড়ি টেনে ছিঁড়ে ফেলেছে হল শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরাফাত হোসাইন অভি। এমন ঘটনা খুবই পীড়াদায়ক। নবীর সুন্নত দাড়ি উপড়ে ফেলা চরম ইসলামবিদ্বেষের পরিচয়। ছাত্রলীগ সারা দেশে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। জাবিতে ছাত্রলীগ স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করেছে। ইবিতে র‌্যাগিংয়ের নামে ছাত্রদের উলঙ্গ করে প্রহারের ঘটনা ঘটেছে। এসব কী হচ্ছে, ছাত্রলীগের লাগাম টেনে না ধরতে পারলে দেশের জন্য অভিশাপ হবে ছাত্রলীগ। কাজেই ছাত্রলীগের ভয়াবহতা থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষায় এদের রুখে দিন। অন্যথায় দেশময় তীব্র আন্দোলন গড়ে উঠলে এদের রক্ষা হবে না।

সভায় ১৫-২৯ ফেব্রুয়ারি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের দেশব্যাপী দাওয়াতি পক্ষ নিয়ে বিশদ আলোচনা করা হয়। সারা দেশে চলমান দাওয়াতী পক্ষ পালন থেকে যেন একজন সদস্য-কর্মীও বাদ না যায় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখা হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব মাওলানা হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম, কৃষিবিদ আফতাব উদ্দিন, কে এম আতিকুর রহমান, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, আলহাজ হারুন অর রশিদ, মাওলানা নেছার উদ্দিন, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, অ্যাডভোকেট শওকত আলী হাওলাদার, আলহাজ আব্দুর রহমান, হাফেজ মাওলানা ফজলুল করীম মারুফ, মুফতি কেফায়েতুল্লাহ কাশফী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, মাওলানা দেরাওয়ার হোসাইন সাকী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, হাফেজ মাওলানা মাহমুদুল হাসান, অ্যাডভোকেট এম হাছিবুল ইসলাম, জিএম রুহুল আমীন, মাওলানা খলিলুর রহমান, মাওলানা নূরুল ইসলাম আল আমিন, মাওলানা আরিফুল ইসলাম, অধ্যাপক নাসির উদ্দিন খান, আলহাজ সেলিম মহামুদ, ডা. দেলোয়ার হোসেন, আল মুহাম্মদ ইকবাল, আব্দুল আউয়াল মজুমদার।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions