শিরোনাম
২৩ বাংলাদেশি নাবিকের মুক্তি,মুক্তিপণ দিতে হলো ৫০ লাখ ডলার পুকুরপাড়ে বসে নারীদের গোসলের ভিডিও ধারণ করা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২০ রাঙ্গামাটির সাজেকে রিসোর্ট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পানির সংকট রাঙ্গামাটিতে বৈশাখের খরতাপে অস্থির জনজীবন,তাপমাত্রা ৩৮ডিগ্রী সেলসিয়াস খাগড়াছড়িতে ত্রিপুরাদের তৈবুংমা-অ-খুম বগনাই উৎসব উদযাপন খাগড়াছড়িতে মারমা সম্প্রদায়ের মাহা সাংগ্রাই-এ জলোৎসবে রঙ্গিন বান্দরবানে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় নববর্ষের উৎসব পালন বান্দরবানে আসামি ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে পুলিশ সদস্য আহত রাঙ্গামাটিতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপজেলা নির্বাচন নিয়ে অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে

যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে ভেটোর হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৬৫ দেখা হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:- গাজায় অবিলম্বে মানবিক যুদ্ধবিরতি কার্যকরে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভোটের জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) একটি প্রস্তাব উত্থাপন করতে পারে আলজেরিয়া। তবে যুক্তরাষ্ট্র হুমকি দিয়ে রেখেছে, এমন প্রস্তাবনায় তারা ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করবে।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রস্তাবনার খসড়া দুই সপ্তাহ আগেই নিরাপত্তা পরিষদে জমা দিয়েছে আলজেরিয়া। জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেন, তার দেশ মনে করে এ প্রস্তাবনা চলমান যুদ্ধবিরতি আলোচনাকে বিপন্ন করতে পারে। তারা এই প্রস্তাবনায় সমর্থন দেবে না এবং নিরাপত্তা পরিষদে এটি পাসও হতে দেবে না।

যুদ্ধবিরতি ও হামাসের কাছে জিম্মি থাকা ইসরায়েলিদের মুক্তির জন্য আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, মিসর, ইসরায়েল ও কাতার। তবে সহসা যুদ্ধবিরতির আশা ক্ষীণ হয়ে উঠছে। কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান বিন জসিম আল থানি বলেছেন, গাজায় যুদ্ধ বিরতি নিয়ে হওয়া গত কয়েক দিনের আলোচনা মোটেও আশাবাদী হওয়ার মতো নয়।

ওয়াশিংটন ঐতিহাসিকভাবেই তার মিত্র ইসরায়েলকে জাতিসংঘের পদক্ষেপ থেকে রক্ষা করে থাকে। গত ৭ অক্টোবর হামাস ও ইসরায়েল যুদ্ধ শুরুর পর দুই দফা ইসরায়েলের পক্ষে ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে গাজায় মানবিক সহায়তা সংক্রান্ত প্রস্তাবে দুইবার ভোটদানে বিরত থাকে দেশটি।

এদিকে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় রবিবার দেওয়া এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় অবরুদ্ধ উপত্যকাটিতে ইসরায়েলি সেনাদের হামলায় নিহত হয়েছেন ১২৭ জন ও আহত হয়েছেন ২০৫ জন ফিলিস্তিনি। সব মিলিয়ে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে গাজায় নিহতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৯৮৫ জনে। আহত হয়েছেন আরও ৬৮ হাজার ৮৮৩ জন। নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই নারী ও শিশু। কর্তৃপক্ষের শঙ্কা, ধ্বংসস্তূপের নিচে আরও হাজার হাজার মরদেহ চাপা পড়ে রয়েছে।

চলমান যুদ্ধের মধ্যেই অধিকৃত পশ্চিমতীরের প্যালেস্টেনিয়ান অথরিটির (পিএ) প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহকে ২৬ ফেব্রুয়ারি মস্কো সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছে রাশিয়া। এই সফরে ফিলিস্তিনিদের ঐক্যের প্রয়োজনে হামাসকেও চায় পিএ।

গাজার খান ইউনিসে অব্যাহত ইসরায়েলি হামলায় ও সপ্তাহব্যাপী অবরোধের কারণে নাসের হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া এক বার্তায় এমনটাই জানিয়েছেন ডব্লিউএইচওর মুখপাত্র টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস। তিনি আরও জানিয়েছেন, এখনো হাসপাতালটিতে প্রায় ২০০ রোগী আছেন। যাদের মধ্যে ২০ জনের জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা প্রয়োজন।

আন্তর্জাতিক উদ্বেগ উপেক্ষা করে মিসরীয় সীমান্তবর্তী শহর রাফায় হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েলি সেনারা। সংবাদমাধ্যম ওয়াফার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেইর এল-বালাহ ও রাফার কাছের একটি কৃষিজমিতে ইসরায়েলি হামলার ঘটনায় ১০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া অধিকৃত পশ্চিমতীরেও হামলা অব্যাহত রেখেছে অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা। নতুন করে তুরমুস আয়া শহরে ফিলিস্তিনি মালিকানাধীন গাড়ি ও সম্পত্তিতে আগুন দেওয়া হয়েছে। হামলা হয়েছে বাড়িঘরেও। সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান/আল-জাজিরা

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions