শিরোনাম
বান্দরবানের সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমারের আরও ১৩ সীমান্তরক্ষী পালিয়ে বাংলাদেশে রাঙ্গামাটিতে সাংগ্রাই জল উৎসব অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়িতে আ.লীগ নেতার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা, সড়কে যান চলাচল বন্ধ ফরিদপুরে বাস-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ১৩ জনের নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে বারতে পারে মৃত্যুের সংখ্যা বৈশ্বিক স্বাধীনতা সূচকে ১৬৪ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪১ কঠোর অবস্থানে ইরান, হামলার পাল্টা হামলা হবে ভয়াবহ, জবাব দেয়া হবে কয়েক সেকেন্ডেে রাঙ্গামাটি ৪ উপজেলায় নির্বাচনে: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৩৭ জন টেস্ট পরীক্ষার নামে বাড়তি ফি আদায় করা যাবে না: শিক্ষামন্ত্রী বিশ্বকাপ নিয়ে বেশি প্রত্যাশার দরকার নেই বলছেন শান্ত বান্দরবানের ৪ উপজেলায় নির্বাচন: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৩২ জন

চট্টগ্রামে ফের করোনা

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৮১ দেখা হয়েছে

ডেস্ক রিরোট:- নতুন বছরে হঠাৎ করে করোনা সংক্রমিত রোগী পাওয়া যাচ্ছে চট্টগ্রামে। গত দু’দিনে চট্টগ্রামে ৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪ জনের শরীরে কোভিড শনাক্ত হয়েছে। শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় এরমধ্যে দু’জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের কোভিড আইসিইউ ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। এমতাবস্থায় সকলকে সতর্ক থাকা এবং মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এদিকে, চট্টগ্রামে প্রতিদিন দু-একজন করে কোভিড রোগী শনাক্ত হওয়ায় নতুন করে হাসপাতালগুলোয় বিশেষায়িত ওয়ার্ড প্রস্তুত রাখার কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে। পাশাপাশি স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে লোকজনকে মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানানো হয়।

তথ্য অনুসারে, গত রবিবার তিনজন কোভিড আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এদিন ৭ জন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জনের কোভিড শনাক্ত হয়। এরমধ্যে ষাটোর্ধ্ব দু’জন বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। দু’জনেরই শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়ায় প্রথমে হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হন। পরে তাদের কোভিড পজিটিভ আসায় তাদের কোভিড আইসিইউ ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়া গতকাল (সোমবার) ২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১ জনের কোভিড শনাক্ত হয়।

চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামীম আহসান বলেন, দুই রোগীকেই হাইফ্লো ন্যাজল ক্যানুলা দিয়ে অক্সিজেন দিতে হচ্ছে। রবিবার খারাপ ছিল। আজ (সোমবার) আগের চেয়ে ভালো আছে। কোভিড রোগীর চিকিৎসায় চমেক হাসপাতাল প্রস্তুত রয়েছে।

এদিকে, সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, বর্তমানে জিএন-১ নামে একটি ধরনের কোভিড-১৯ আক্রান্ত হচ্ছেন লোকজন। এই অবস্থায় হাসপাতালগুলোতে নতুন করে বিশেষায়িত বিভাগ প্রস্তুত রাখার তাগিদ দেওয়া হয়।

জানতে চাইলে সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, নতুন করে দু’একজন করে রোগী প্রতিদিন পাওয়া যাচ্ছে। হাসপাতালগুলো বিশেষায়িত ওয়ার্ড প্রস্তুত রেখেছে। স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে লোকজনকে মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, কোভিড শুরুর পর থেকে গতকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে ১ লাখ ২৯ হাজার ৬৪০ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩৭১ জনের।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো
© All rights reserved © 2023 Chtnews24.net
Website Design By Kidarkar It solutions