বুধবার, ২৭ অক্টোবর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ০১:৫৪:৩২

দোকান মালিকের সঙ্গে বিরোধ, কর্মচারীর নখ উপড়ে নিল যুবলীগ-ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

দোকান মালিকের সঙ্গে বিরোধ, কর্মচারীর নখ উপড়ে নিল যুবলীগ-ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

ডেস্ক রির্পোট:- নাটোরে চাঁদা না পেয়ে দোকান কর্মচারীর হাতের আঙ্গুলের নখ উপড়ে নিয়েছেন যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় সংগঠন দুটির আট নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ওই দোকানের মালিক আব্দুস সালাম। গতকাল রোববার সকালে নাটোর সদর থানায় মামলা করা হয়। আসামিরা হলেন- নাটোর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রনি আহমেদ, তাঁর ভাই যুবলীগ সদস্য রবিউল আওয়াল বাপ্পি, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ হিল কাফী শুভসহ ৮ জন। মামলার পর দুই যুবলীগ কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- নাটোর সদর উপজেলার নবীনগর গ্রামের ইসাহাক আলীর ছেলে একরাম হোসেন ওরফে সুমন (৩৫) এবং শহরের চকরামপুর মহল্লার আনিসুর রহমানের ছেলে মো. আবির হোসেন (২৬)। এ সময় পুলিশ দোকান মালিকের ছিনিয়ে নেওয়া একটি আরওয়ান ফাইভ মডেলের মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে একরাম হোসেন সুমন ও আব্দুস সালামের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এর জেরে গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরের স্টেশন বাজার এলাকা থেকে ব্যবসায়ী সালাম ও তাঁর দোকানের কর্মচারী ফয়সাল হোসেনকে (১৫) মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যান রবিউল আওয়াল বাপ্পি ও মোহাম্মদ মনি। তাঁদের সহযোগিতা করেন মো. আবির এবং সুমন। তাঁদের দুজনকে শহরের কানাইখালী এলাকার ৪ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নেওয়ার পর দোকান কর্মচারী ফয়সালকে চোর দাবি করে তার কাছে তিন লাখ টাকা চাঁদা চান আসামিরা। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে ব্যবসায়ী সালামের সামনেই প্লায়ার্স দিয়ে ফয়সালের বাম হাতের তর্জনীর নখ উপড়ে ফেলা হয়। এ সময় বাড়ি থেকে সালামকে স্ত্রীর স্বর্ণালংকার আনতে বলা হয়। ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম মামলার অভিযোগে বলেন, তাঁর ব্যবহৃত আরওয়ান ফাইভ মডেলের মোটরসাইকেলটি এ সময় আসামিদের দিয়ে দিলেও তাঁরা আরও দুই লাখ টাকা দাবি করেন। এ ঘটনা পুলিশকে জানালে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়। টাকা জোগাড় করতে না পেরে বাধ্য হয়ে নাটোর থানা পুলিশকে মৌখিকভাবে জানান তিনি। ঘটনা শুনে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে যায় এবং ফয়সাল ও আবদুস সালামের মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। এ বিষয়ে সংগঠনের পক্ষ থেকে মন্তব্য চাইলে নাটোর জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন বিপ্লব এ ঘটনার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, এমন ঘটনার সঙ্গে যুবলীগের কেউ জড়িত থাকলে তাঁদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। নাটোর থানার ওসি মনসুর রহমান বলেন, খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার এবং ভুক্তভোগী ফয়সালকে উদ্ধারের পাশাপাশি ব্যবসায়ী আব্দুস সালামের মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। আহত ফয়সালকে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  মন্দিরে হামলা মামলা,আসামি প্রতিবন্ধী,বাদী বলছেন আ.লীগ সভাপতি জোর করে করিয়েছেন

  জীবন ইয়ুথ ফাউন্ডেশন - পাহাড়ে সাজিদের গ্রীন আর্মির গল্প

  চারিদিকে পানি, মরদেহ সৎকার নৌকায়

  কুমিল্লার ঘটনায় সেই যুবক কক্সবাজারে গ্রেপ্তার,সামনে ইকবাল পেছনে কে

  কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ৭

  প্রবারণায় ফানুস কেন ওড়ানো হয়?

  ২২ অক্টোবর জাহানারা কাঞ্চনের ২৮তম মৃত্যু বার্ষিকী

  পার্বত্য চট্রগ্রাম ওলামা পরিষদের আত্নপ্রকাশ

  বাংলাদেশ সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ : অ্যামনেস্টি

  সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার তদন্ত চায় জাতিসংঘ

  আমরা আর সহ্য করতে পারছি না: শাহবাগে বক্তারা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?