রবিবার, ১৭ অক্টোবর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ০৪:৩৫:৪৭

ঢালাওভাবে সাংবাদিক নেতাদের সম্পদের হিসাব চাওয়া চাপ-আতঙ্ক তৈরির কৌশল

ঢালাওভাবে সাংবাদিক নেতাদের সম্পদের হিসাব চাওয়া চাপ-আতঙ্ক তৈরির কৌশল

ডেস্ক রির্পোট:- সাংবাদিকদের ছয় শীর্ষ সংগঠনের ১১ জন নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)। গতকাল মঙ্গলবার এক যৌথ বিবৃতিতে ওই দুই সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিবৃতিতে বলা হয়, সাংবাদিকদের স্বার্থ রক্ষা ও অধিকার আদায়ে একাগ্র সাংবাদিক সংগঠনগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করা এবং নির্বাচিত নেতাদের হেয় করার মাধ্যমে স্বাধীন সাংবাদিকতার ওপর নতুন করে চাপ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে। অবিলম্বে এ ধরনের উদ্দেশ্যপ্রণোদিত তৎপরতা বন্ধ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংগঠন দুটির নির্বাহী পরিষদ। বিবৃতি দেওয়া (বিএফইউজের আওয়ামীপন্থী অংশের সভাপতি মোল্লা জালাল আজকের পত্রিকাকে বলেন, সুনির্দিষ্টভাবে সাংবাদিক নেতাদের পদ-পদবি উল্লেখ করে ব্যাংক হিসাব চাওয়ার বিষয়টা হাস্যকর। তবুও এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করে যে তথ্য পাওয়া যাবে, সেই তথ্য গুরুত্ব সহকারে জনসমক্ষে প্রকাশ করা হোক। যদি তা না হয়, তাহলে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই উদ্যোগটা মানহানির পর্যায়ে পড়বে। বিবৃতিতে নির্বাহী পরিষদের নেতারা আরও বলেন, রাজধানীসহ সারা দেশের কয়েক হাজার পেশাদার সাংবাদিকের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত শীর্ষ ৬ সংগঠনের নেতারা দায়িত্ব পালন করছেন। বন্ধ হতে থাকা গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান, সংবাদকর্মীদের বেকারত্ব, চাকরিচ্যুতি, দীর্ঘদিন ধরে বেতন-ভাতা বকেয়ার মতো প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবিলা করে টিকে থাকার সংগ্রাম করছেন কর্মরত সাংবাদিকেরা। যদি কোনো বিশেষ নেতা বা সাংবাদিকের ব্যাংক হিসেবে অস্বাভাবিক লেনদেন বা অর্থ পাচারের সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে আইনি প্রক্রিয়ায় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু ঢালাওভাবে সংগঠনের শীর্ষ পদে নির্বাচিতদের আর্থিক লেনদেন তলব সাংবাদিক সংগঠন ও এর নেতৃত্বকে প্রশ্নবিদ্ধ এবং হেয় করার দুরভিসন্ধি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। দেশে হাজারো কোটি টাকা লুটপাটের যেসব চাঞ্চল্যকর খবর প্রতিনিয়ত গণমাধ্যমে আসছে তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নিলেই কেবল এ ধরনের পদক্ষেপের যৌক্তিকতা মিলতো। পাশাপাশি সাংবাদিক ছাড়াও অন্যান্য পেশাজীবী সংগঠনের নেতাদের হিসাব বিবরণীও একই সঙ্গে তলব করা হলে বিষয়টি যুক্তিযুক্ত হতো বলে মনে করেন সাংবাদিক নেতারা। বিএফইউজে ও ডিইউজে নির্বাহী পরিষদের বক্তব্য, দেশের গণমাধ্যম চরম সংকটকাল পার করছে। স্বাধীন ও সাহসী সাংবাদিকতার পরিবেশ বিপন্ন। এমন নাজুক পরিস্থিতিতে ঢালাওভাবে সাংবাদিক সংগঠন ও নেতাদের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার অপপ্রয়াস সংবাদমাধ্যম ও সাংবাদিকদের মধ্যে নতুন করে চাপ ও আতঙ্ক সৃষ্টি ছাড়াও জনমনে ভুল বার্তা দেবে। ডিইউজের একাংশের সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ আজকের পত্রিকাকে বলেন, সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের উদ্দেশ্য নিয়ে আমাদের প্রশ্ন রয়েছে। আইন অনুযায়ী তারা যে কাউকে তলব করতে পারে। তবে শুধু একটা পেশাজীবী সংগঠনের সব নির্বাচিত শীর্ষ নেতাদের বিষয়ে খোঁজ খবর করা উদ্বেগের বিষয়। আমার মনে হয়, কোনো মহল বিশেষের এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য আছে। ডিইউজের পক্ষ থেকে এ ধরনের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এই বিভাগের আরও খবর

  শর্ত ভেঙে সম্প্রচার বন্ধ করেছে ক্যাবল অপারেটররা : তথ্যমন্ত্রী

  জনকণ্ঠ থেকে অব্যাহতি চেয়েছেন তোয়াব খান

  সরকার কোনো বিদেশি চ্যানেল বন্ধ করেনি : তথ্যমন্ত্রী

  বিদেশি সব টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ

  নয় মাসে ১৫৪ সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার,‘ক্রসফায়ারে’ মারা গেছেন ৪৮ জন

  বিজ্ঞাপনমুক্ত না হলে দেশে চলবে না বিদেশি চ্যানেল

  নিবন্ধনহীন নিউজ পোর্টাল বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু

  বিএফইউজের নির্বাচন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট

  সাংবাদিক সংগঠনসমুহকে নিবন্ধনের আওতায় আনতে মন্ত্রীপরিষদে আবেদন

  'দেশের জন্য সাংবাদিকদের ঐক্য জরুরি'

  ‘ব্রিফকেসবন্দি’ ২১০টি পত্রিকা বন্ধে জেলা প্রশাসনের কাছে চিঠি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?