বুধবার, ২৭ অক্টোবর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ০৬:৫৬:৪৮

খাগড়াছড়িতে ছেলের দায়ের কোপে বাবার মৃত্যু

খাগড়াছড়িতে ছেলের দায়ের কোপে বাবার মৃত্যু

খাগড়াছড়ি:- খাগড়াছড়ির জামতলী বাঙালি পাড়ায় নেশাগ্রস্ত ছেলে জনির এলোপাতাড়ি দায়ের কোপে বাবা নিহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার বেলা ৩টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম মো. মিন্টু আলী (৫২)। তিনি উপজেলার জামতলী বাঙালি পাড়ার মো. মোবারক মিয়ার ছেলে। নিহত মিন্টু আলীর দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। স্থানীয়রা বলেন, প্রায়ই নিহতের ছেলে জনি নেশা করে বারিতে আসতেন এবং বাবা ছেলের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হতো। এরই জেরে মিন্ট আলীকে জনি দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন। নিহতের বড় মেয়ে মিনারা (২৭) বলেন, আমি বাবার পাশের ঘরে শুয়ে ছিলাম। হঠাৎ বাবার ঘরে শব্দ শুনতে পাই। ঘরে গিয়ে দেখি বাবা মাটিতে শুয়ে আছে। পরে মাও বাবাকে ডাকতে আসে এবং দেখে ঘরের পুরো মেঝে রক্তে মেখে আছে। তা দেখা মা অজ্ঞান হয়ে যায়। পরবর্তীতে আমি চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন আসে। এরপর আমি আর কিছু বলতে পারি না। নিহতের বাবা মোবারক মিয়া বলেন, আমার ছেলেকে রক্তাক্ত অবস্থায় দীঘিনালা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নিয়ে গেলে ডাক্তার বলে সে মারা গেছে। দীঘিনালা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. মো. আবির বলেন, নিহতকে তাঁর বাবা মোবারক মিয়া হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে আসার আগেই মারা যান তিনি। দীঘিনালা থানার উপপরিদর্শক শেখ মিল্টন রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের শরীরে তিনটি দায়ের কোপ রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। উপপরিদর্শক আরও বলেন, ছেলেকে আইনের আওতায় আনতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?