শনিবার, ৩১ জুলাই ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২২ মে, ২০২১, ০১:৪৮:৪৪

চুলের খুসকি দূর করতে সাহায্য করে নিম পাতা

চুলের খুসকি দূর করতে সাহায্য করে নিম পাতা

অনলাইন ডেস্ক: নিম একটি ঔষধি গাছ। যার ডাল, পাতা, রস সবই কাজে লাগে। নিম ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া নাশক হিসেবে নিম খুবই কার্যকর। আর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

আসুন জেনে নেওয়া যাক নিমের উপকারিতাগুলো-

ত্বক

বহুদিন ধরে রূপচর্চায় নিমের ব্যবহার হয়ে আসছে। ত্বকের দাগ দূর করতে নিম খুব ভালো কাজ করে। এছাড়াও এটি ত্বকে ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে। ব্রণ দূর করতে নিমপাতা বেটে লাগাতে পারেন। মাথার ত্বকে অনেকেরই চুলকানি ভাব হয়। নিমপাতার রস মাথায় নিয়মিত লাগালে এই চুলকানি কমে। নিয়মিত নিমপাতার সঙ্গে কাঁচা হলুদ পেস্ট করে লাগালে ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি ও স্কিন টোন ঠিক হয়।

চুল

উজ্জ্বল, সুন্দর ও দৃষ্টিনন্দন চুল পেতে নিমপাতার ব্যবহার বেশ কার্যকর। চুলের খুসকি দূর করতে শ্যাম্পু করার সময় নিমপাতা সিদ্ধ পানি দিয়ে চুল ম্যাসেজ করে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। খুসকি দূর হয়ে যাবে। চুলের জন্য নিম পাতার ব্যবহার অদ্বিতীয়। সপ্তাহে ১ দিন নিমপাতা ভালো করে বেটে চুলে লাগিয়ে ১ ঘণ্টার মতো রাখুন। এবার ১ ঘণ্টা পর ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন চুল পড়া কমার সঙ্গে সঙ্গে চুল নরম ও কোমল হবে।

কৃমিনাশক

পেটে কৃমি হলে শিশুরা রোগা হয়ে যায়। পেটে বড় হয়। চেহারা ফ্যাকাশে হয়ে যায়। বাচ্চাদের পেটের কৃমি নির্মূল করতে নিমের পাতার জুড়ি নেই।

দাঁতের রোগ

দাঁতের সুস্থতায় নিমের ডাল দিয়ে মেসওয়াক করার প্রচলন রয়েছে সেই প্রাচীনকাল থেকেই। নিমের পাতা ও ছালের গুড়া কিংবা নিমের ডাল দিয়ে নিয়মিত দাঁত মাজলে দাঁত হবে মজবুত, রক্ষা পাবেন দন্ত রোগ থেকেও।

এই বিভাগের আরও খবর

  ৫ আগস্টের পরেও চলমান বিধিনিষেধ বাড়ানোর সুপারিশ

  পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি থাকতে দেয়া হবে না--চসিক মেয়র

  করোনায় ঢাকা বিভাগে ৬৫ চট্টগ্রামে ৫৩ জনের মৃত্যু

  রবিবার থেকে রফতানিমুখী শিল্প-কারখানা খোলা

  পাহাড় থেকে আশ্রয়কেন্দ্রে আরও ২৫ পরিবার

  বিদায়ী ঈদযাত্রায় ২৪০ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২৭৩ জন

  শনি ও বুধবার আসছে অক্সফোর্ডের আরও ১৩ লাখ টিকা

  করোনায় দেশে একদিনে আরও ২১২ জনের প্রাণহানি,শনাক্ত ১৩৮৬২ জন

  আগামী ৮ আগস্ট থেকে ১৮ বছরেই মিলবে টিকা

  আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

  চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে পাহাড়ধস,১৬৬ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড



আজকের প্রশ্ন