রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট, ২০২১, ০৩:৫৫:০১

পরীমনিসহ চারজনকে গ্রেফতারের কথা জানালো র‌্যাব

পরীমনিসহ চারজনকে গ্রেফতারের কথা জানালো র‌্যাব

ডেস্ক রির্পোট:-বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি ও প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজসহ চারজনকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) দুপুরে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। র‌্যাব জানায়, বুধবার বিকেলে সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদসহ অন্যান্য মাদক উদ্ধার করা হয়। এরপর প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের বাসা থেকেও মাদক ও সিসার সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে র‌্যাব বাদি হয়ে বনানী থানায় মামলা দায়ের করবে, ইতোমধ্যে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এরপর তাদের সেই সব মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে বলে জানায় র‌্যাব। বুধবার রাত সোয়া আটটার দিকে বনানীর বাসা থেকে পরীমনিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই দিন সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে বনানীর লেক ভিউ ১৯/এ নম্বর রোডের ১২ নম্বর বাড়িতে অভিযানে যান র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় তাৎক্ষণিক ফেসবুক লাইভে এসে পরীমনি বিষয়টি সবাইকে জানান। তিনি বলেন, অজ্ঞাতপরিচয় বিভিন্ন পোশাকের কয়েকজন ব্যক্তি বাসার বাইরে থেকে কলিং বেল দিয়ে দরজা খুলতে বলছেন। ফেসবুক লাইভে থাকা অবস্থায়ই পরীমনি থানা-পুলিশ, ডিবির কর্মকর্তা ও তার পরিচিতজনদের কাছে ফোন করে তাকে বাঁচানোর আহ্বান জানান। বাইরে থেকে বারবার র‌্যাব তাদের পরিচয় দিলেও তিনি ভেতর থেকে দরজা খুলছিলেন না। পরে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বাসার বারান্দা দিয়ে দেখে বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে ভেতর থেকে দরজা খুলে দেওয়া হয়। এরপর র‌্যাব সদস্যরা বাসার ভেতরে ঢুকে তল্লাশি শুরু করেন। সেই সময় র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈন জানান, সুনির্দিষ্ট কয়েকটি অভিযোগের ভিত্তিতে চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় র‍্যাব অভিযান পরিচালনা করছে। অভিযানের প্রথম দিকে পরীমনি র‌্যাবকে কোনো সহযোগিতা করেননি। তবে পরে তার ঘর তল্লাশি করে ফ্ল্যাটের কেবিনেট থেকে বিদেশি মদ, লাইসার্জিক অ্যাসিড ডাইইথ্যালামাইড (এলএসডি) এবং আইস মাদক উদ্ধার করা হয়। পরে তার ড্রয়িং রুমের কাভার্ড, শো-কেস, ডাইনিং রুম, বেডরুমের সাইড টেবিল এবং বাথরুম থেকে বিপুল পরিমাণ মদের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযানে অংশ নেওয়া র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, পরীমনির ড্রইংরুম, ডাইনিংরুম, বেডরুম এমনকি বাথরুম থেকেও বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়েছে। পুরো বাসাজুড়ে থরে থরে মদের বোতল রাখা ছিল। তার বাসার এমন কোনো জায়গা নেই, যেখানে মদ ছিল না। তার কাছে দেশি-বিদেশি নামিদামি ব্র্যান্ডের মদ ছিল, যা বাংলাদেশে খুব কমই আমদানি হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?