রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট, ২০২১, ০২:৪৫:৪২

নানিয়ারচরসহ দুর্গম পার্বত্য এলাকায় মানুষ করোনা টিকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে

নানিয়ারচরসহ দুর্গম পার্বত্য এলাকায় মানুষ করোনা টিকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে

নানিয়ারচর:-সরকার সারাদেশে করোনা ভাইরাসের টিকা নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু সুবিধাবঞ্চিত নানিয়ারচর উপজেলা বাসিসহ দুর্গম পার্বত্য এলাকায় মানুষ এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নানিয়ারচর উপজেলার সঙ্গে স্থানীয়দের যোগাযোগের একমাত্র উপায় হচ্ছে সড়ক ও নদী পথ। কোন কোন স্থানে যোগাযোগ এতটাই দুর্গম যে উপজেলা সদরে আসতেই কিছু গ্রাম হতে অনেক সময় লাগে খরচও বেশি । উপজেলার এই দুর্গম এলাকার মানুষ কি করে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী ভ্যাকসিনের সুবিধার আওতায় আসবেন তা নিয়েও স্থানীয়দের মাঝে দেখা দিয়েছে উদ্বেগ উৎকন্ঠা। এখানকার বেশিরভাগ মানুষ জুম চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। স্থানীয়রা জানান, বুড়িঘাট,ঘিলাছড়ি ইউনিয়ন ও সাবেক্ষ‍্যং ইউনিয়নের কিছু এলাকা আছে এসব বন জঙ্গলের ভেতর দিয়ে পায়ে হেঁটে আসতে সময় লাগে। আর যাতায়াত খরচ অনেক বেশি,সারা দেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও ভিতরে তেমন কোনও উন্নয়নের ছোয়া এখনও দুর্গম এসব এলাকায় চোখে পড়ে না। অপর দিকে পাশা পাশি বিদ্যুতের সুবিধা ও মোবাইলফোনের নেটওয়ার্কের কোনও সুবিধা নেই। গ্রামের এসব সাধারণ মানুষ জীবিকার প্রয়োজনে শুধু হাটের দিন দীর্ঘপথ পাড়ি দিয়ে উপজেলা নানিয়ারচরে আসেন। সরকার সারাদেশে করোনা ভাইরাসের টিকা নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু সুবিধাবঞ্চিত দুর্গম পার্বত্য এলাকায় বসবাসকারীদের মনে হচ্ছে এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এখনও অনেকের মধ্যে টিকা গ্রহণের বিষয়ে কোনও ভালো ধারণা নেই। কেউ কেউ টিকার বিষয়ে অবগত আছেন বলে জানিয়েছেন। আবার অনেকের ইচ্ছে থাকলেও দুর্গম এলাকা থেকে টিকা নিতে অনীহা প্রকাশ করছেন। স্থানীয় কিছু জনসাধারনের সাথে কথা বলে জানা গেছে,বর্তমান লকডাউনে কর্মহীন রয়েছি,হাতে কোন টাকা নেই,অনেকের ভাড়া দিয়ে টিকা গ্রহনে অসুবিধা হবে,সেহেতু কতৃপক্ষের সদয় অবগতির দিকে তাকানো ছাড়া আর কিছু করার নেই। এদিকে নানিয়ারচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার জরুরী নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে কোন সাড়া মেলেনি,তবে উপজেলা মেডিকেল অফিসার নুয়েন খীসার মুঠোফোনে কথা বলে জানা গেছে, তিনি বলেন,উর্ধ্বতন কতৃপক্ষ থেকে এখনো কোন সাড়া পাইনি বিস্তারিত তথ‍্য আসলে জানাতে পারবো। লোকমুখে শোনাগেছে উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে ১২টি বুথ দেওয়া হবে,তবে কোন কোন স্থানে দেওয়া হচ্ছে অনেকটা অনিশ্চিত রয়ে গেছে,এই বিষয়ে নানিয়ারচর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সেক্রেটারি সাথে মুঠোফোনে কথা বলে জানাগেছে,এ বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না,আমাদের কোন কিছুই বলা হয়নি,আমাদের জানানো হলে প্রেস রিলিজ আকারে সংবাদ প্রেরন করবো। তবে ওয়ার্ড পর্যায়ে কেন্দ্রের ভিতিত্তে তারিখ ও সময় নির্ধারণ করে স্বাস্থ্যকর্মীদের মাধ্যমে ওইসব এলাকার মানুষকে টিকা নেওয়ার বিষয়ে সচেতনতা মূলক পরামর্শ ও টিকা দেওয়া গেলে অনেকটা নিশ্চিত হতে পারে এইটাই ধারণা স্থানীয়দের। নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রগতি চাকমা বলেন, এলাকার মানুষ এতদিন ভ্যাকসিন নিতে অনীহা প্রকাশ করলেও হঠাৎ এ উপজেলায় রোগী বেড়ে গেছে অনেকে ভয়ে রয়েছে। ফলে এই দুর্গম এলাকায় বিশেষ বিবেচনায় করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে সরকারের ঘোষিত কার্যক্রম বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে কতৃপক্ষের নজর দেওয়া প্রয়োজন।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

  রাঙ্গামাটিতে নারী স্বেচ্ছাসেবকদের প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

  রাঙ্গামাটির বালুখালী ইউনিয়নের লক্ষণ্যা পাড়ায় নেই স্কুল, নিরক্ষর থেকে যাচ্ছে শিশুরা

  পাহাড়ে বসবাসরত ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর লুসাইরা অস্তিত্বের সংকটে

  রাঙ্গামাটির কুতুকছড়িতে নির্মিত হবে ব্রিজ,ব্যয় প্রায় ১৫ কোটি

  রাঙ্গামাটিতে জেএসএস নেতা সুরেশ চাকমাকে গুলি করে হত্যা

  রাঙ্গামাটিতে আরও ৯ জনের করোনা শনাক্ত

  কাপ্তাই হ্রদের দ্বীপে শোভা পাচ্ছে রঙিন ড্রাগন ফল

  পার্বত্য চট্টগ্রামে খিয়াংদের কোথাও জনপ্রতিনিধি নেই

  রাঙ্গামাটির কাপ্তাই মৎস্য আহরণ কেন্দ্রে ১৪ দিনে রাজস্ব আদায় ৭৩ লাখ

  দীর্ঘ দেড় বছর পর প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে পার্বত্যাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?