রবিবার, ১৭ অক্টোবর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৮ জুলাই, ২০২১, ০৩:৫৮:৩০

শাল্লায় প্রধানমন্ত্রীর ঘরে বড় বড় ফাটল, ভেঙ্গে পড়ার শঙ্কা

শাল্লায় প্রধানমন্ত্রীর ঘরে বড় বড় ফাটল, ভেঙ্গে পড়ার শঙ্কা

ডেস্ক রির্পোট:- মুজিব জন্ম শতবর্ষে প্রধানমন্ত্রী নিজ উদ্যোগের দেশের আশ্রয়ণহীনদের আশ্রয়ন দিতে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প হাতে নিয়ে একযোগে সারা দেশে লক্ষাধিক ঘর নির্মাণ করেছেন। যা বিশ্বব্যাপী আজ নন্দিত। কিন্তু ভাটির জেলা সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত শাল্লা উপজেলায় দেখা গেছে এর বিরূপ প্রতিক্রিয়া। নির্মিত প্রায় প্রতিটি ঘরেই এখনই দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল। অনেক সুবিধাভোগীরা জানিয়েছেন ঘর পেয়ে তাদের নানান অসুবিধার কথা। উপজেলার বাহাড়া (সদর) ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামে বুধবার ৭জুলাই বিকেলে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় ওই গ্রামে নির্মিত ঘর সমূহের মধ্যে অনেক ঘরেই বিশাল বিশাল ফাটল ও মেঝে ভাঙ্গা, টয়লেট ভাঙ্গাসহ নানা ত্রুটি। তাছাড়া সুবিধাভোগীদের মধ্যে আব্দুল গনি মিয়া জানান, ঘর পেতে ও নির্মাণ করতে আমাকে অনেক কষ্ট পোহাতে হয়েছে। পাশাপাশি নিজের হাত থেকে নগদ টাকাও ব্যয় করতে হয়েছে। ওইগ্রামের খায়রুল মিয়ার স্ত্রী পাখি বেগম বলেন, ঘর পেয়ে আমরা এখন বিপদে আছি। আমার স্বামী একজন দিন মজুর। ঘরের জন্য সারা বছর কোনো কাজ করতে পারেনি। ঘর পেয়ে আমাদের আরো ৭০ থেকে ৮০হাজার টাকা ধারকর্জ করতে হয়েছে। তারপরও ঘরে বিশাল বড় ফাটল। যেকোনো সময় ভেঙ্গে আমাদের উপর পরতে পারে। এছাড়া ওই গ্রামের আব্দুল আলীর ছেলে মমিন মিয়া, আঃ রাজ্জাকার মিয়ার ছেলে আঃ ছত্তার মিয়া, মৃত ডেক্সগু মিয়ার ছেলে বাবুল মিয়া, মন্নান মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়াসহ বেশ কতোটি ঘরের একই অবস্থায় দেখা যায়। ঘর প্রাপ্ত সুবিধাভোগীরা বলেন, নি¤œমানের মালামাল দিয়ে ঘর নির্মাণ করায় আজ এ অবস্থা দাঁড়িয়েছে। তারা আরো জানান যে, আমরা এসব নি¤œমানের মালামালদিয়ে ঘরের কাজ করতে নিষেধ করলে কেউ আমাদের কথা শুনেনি। এনিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও উপজেলা সংশ্লিষ্ট কমিটির সদস্য সচিব শেখ মোঃ ফজলুল করিমের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, আমি এখনই ইউএনও স্যারের সাথে কথা বলছি, দেখি কি করা যায়। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আল মুক্তাদির হোসেনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, এসব ঘরগুলোর অবস্থা আমিও দেখেছি, এগুলো মেরামতের জন্য প্রয়োজনীয় মালামাল সংগ্রহ করছি। তাড়াতাড়িই এসব ঘর মেরামতকরে দেবো।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?