শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৩ অক্টোবর, ২০২১, ০১:২০:২১

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: রাতে দেশ ছাড়ছেন টাইগাররা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: রাতে দেশ ছাড়ছেন টাইগাররা

ডেস্ক রির্পোট:- টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে আর অল্প কয়েকদিন বাকি। এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি শেষ করেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আজ রাতে ওমানের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে টাইগাররা। এরইমধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকাপ আবহে পা রাখতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এই মিশন সফলভাবে পার করতে পারলে আরব আমিরাতে যাবে সুপার টুয়েলভ খেলতে। রাত পৌনে ১১টায় ওমানের উদ্দেশে যাত্রা করতে ঢাকা ত্যাগ করবেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা। যেখানে ১৫ সদস্যের মূল দলের ১৩জন ও স্ট্যান্ডবাই দুই ক্রিকেটার যাচ্ছেন। সঙ্গে একজন নির্বাচক, মিডিয়া ম্যানেজার ও কয়েকজন সহকারীসহ ২১-২২ সদস্যের একটি দল বিশ্বকাপের মিশনে দেশ ছাড়বে। সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান যোগ দেবেন আইপিএল শেষ করে। বাংলাদেশ দলের বিদেশি কোচিং স্টাফের সকল সদস্য ছুটিতে আছেন। তারা কেউ ঢাকায় আসেননি। নিজ নিজ দেশ থেকে সরাসরি ওমানে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। ওমানের রাজধানী মাসকটে পৌঁছে ৪ অক্টোবর কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বাংলাদেশ দলকে। পরদিন থেকে শুরু হয়ে ৮ তারিখ পর্যন্ত চলবে অনুশীলন। সেখান থেকে ৯ অক্টোবর দল যাত্রা করবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে। আমিরাতে পৌঁছে কোয়ারেন্টাইন শেষে ১১ অক্টোবর আরও একদিন অনুশীলন করার সুযোগ পাবে টাইগাররা। ১২ অক্টোবর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ হবে আবুধাবি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। পরদিন অনুশীলন। ১৪ তারিখে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হবে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ। দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ শেষ করে ১৫ অক্টোবর আসল মঞ্চে পা রাখতে ফের ওমানে রওনা হবেন মাহমুদউল্লাহরা। সেখানে ফের একদিন অনুশীলন করবেন তারা। ১৭ অক্টোবর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন। বাছাইপর্বে টাইগারদের দ্বিতীয় ম্যাচ ১৯ অক্টোবর স্বাগতিক ওমানের বিপক্ষে। দুটি ম্যাচ শুর হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায়। ২১ অক্টোবর দুপুর দুইটায় বাছাইপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাপুয়া নিউগিনি। ম্যাচগুলো জিতলেই বাংলাদেশ বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?