সোমবার, ২১ জানুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ০৬ জানুয়ারী, ২০১৯, ০৯:০৩:৪২

টানা ৫ ম্যাচ জয়, ইতিহাস গড়লেন ম্যান ইউ'র নতুন কোচ

টানা ৫ ম্যাচ জয়, ইতিহাস গড়লেন ম্যান ইউ'র নতুন কোচ

স্পোর্টস ডেস্কঃ-প্রিমিয়র লিগে টানা চতুর্থ জয়ের পর শনিবার রাতে এফ এ কাপে রিডিংকে হারানোর সঙ্গে সঙ্গে স্যার ম্যাট বুসবিকে টপকে গেলেন লুকাকুদের নতুন প্রধান কোচ। দায়িত্বভার গ্রহণের পর সোল্কজায়েরই হলেন ম্যান ইউয়ের প্রথম কোচ, যিনি প্রথম পাঁচ ম্যাচে জয় তুলে নিলেন। ম্যাট বুসবি, অ্যালেক্স ফার্গুসনদের ছাপিয়ে কোচ হিসেবে অনন্য নজির গড়লেন নরওয়ের এই উত্তরসূরী।
মরিনহো বিদায়ের পর পাঁচ গোলে জয় দিয়ে ম্যান ইউয়ে শুরু করেছিলেন তার স্বপ্নের অভিযান। এরপর এক এক করে টানা জয় প্রথম পাঁচ ম্যাচে। সাম্প্রতিক অতীতে ইউনাইটেডের এমন ধারাবাহিক দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে অনভ্যস্ত হয়ে উঠেছিলেন সমর্থকেরা। ফার্গুসনের স্মৃতি উসকে যেন ক্লাবের সেই সোনালী দিনগুলো ফিরিয়ে আনছেন ক্লাবেরই ওলে সোল্কজায়ের।
পারফরম্যান্সের হিসাবে এদিন এফ এ কাপের তৃতীয় ম্যাচে রেড ডেভিলসদের পারফরম্যান্স আহামরি কিছু ছিল না। কিন্তু দু’গোলে ম্যাচ জিতে নিয়ে কাজের কাজটি সেরে নেন লুকাকুরা। প্রথমার্ধের জোড়া গোলেই জয় নিশ্চিত হয় সোল্কজায়ের অ্যান্ড কোম্পানির।
প্রথম কোয়ার্টারে নির্বিষ ম্যান ইউ পেনাল্টি পায় ম্যাচের ২২ মিনিটে। স্প্যানিশ মিডিও জুয়ান মাতাকে বক্সের মধ্যে অবৈধভাবে ফেলে দেওয়ায় ক্ষতিপূরণ দিতে হয় হোম টিমকে। ভিএআরের সাহায্য নিয়ে স্পটকিকের নির্দেশ দেন রেফারি। স্পটকিক থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দিতে ভুল করেননি মাতা।
এরপর বিরতির ঠিক আগের মুহূর্তে দলের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন লুকাকু। বেলজিয়ান স্ট্রাইকারকে উদ্দেশ্য করে স্যাঞ্চেজের ডিফেন্স চেরা থ্রুয়ের কোনও উত্তর এক্ষেত্রে ছিল না রিডিং রক্ষণের কাছে। গোলরক্ষককে মাটি ধরিয়ে এফ এ কাপে নিজের ১৩ তম গোলটি তুলে নেন লুকাকু। সেইসঙ্গে নিশ্চিত হয়ে যায় ম্যান ইউয়ের জয়।
ঘরের মাঠে ৬০ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেও ম্যান ইউ গোলরক্ষককে টপকে সারা ম্যাচে গোল করতে ব্যর্থ হয় রিডিং। স্প্যানিশ দি গিয়ার পরিবর্তে তিনকাঠির নীচে এদিন দুরন্ত ছন্দে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান সার্জিও রোমেরো। দারুণ খেলে ম্যাচের সেরা হন জুয়ান মাতা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

মন্ত্রিসভা থেকে পুরনোদের বাদ দেওয়াকে ভালো সিদ্ধান্ত বলেছেন সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?