মঙ্গলবার, ২৫ জুন ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ০৭:০৭:১৩

কাপ্তাই রাইফেল ক্লাবের উদ্যোগে বিজয় দিবস শ্যুটিং প্রতিযোগিতা

কাপ্তাই রাইফেল ক্লাবের উদ্যোগে বিজয় দিবস শ্যুটিং প্রতিযোগিতা

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কাপ্তাই রাইফেল ক্লাবের উদ্যোগে বিজয় দিবস শ্যুটিং প্রতিযোগিতা সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) ওয়াগ্গাছড়া চা বাগানে অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে এয়ার রাইফেল এবং পয়েন্ট টু টু বোর রাইফেলে শ্যুটিং প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। কাপ্তাই উপজেলা মহিলা ক্লাবের সভানেত্রী আফরোজা আক্তার রেখা আনুষ্ঠানিকভাবে শ্যুটিং প্রযোগিতার উদ্বোধন করেন। নারী পুরুষ ও শিশুরা শ্যুটিংয়ে অংশ নেন। শ্যুটিং প্রতিযোগিতা পরিচালনা করেন শ্যুটিং ক্লাবের সাধারন সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মাহবুব হাসান বাবু, মোঃ ইস্রাফিল হোসেন ও বিদর্শন বড়ুয়া। শ্যুটিং প্রতিযোগিতা ছাড়াও অনুষ্ঠানে র‌্যাফেল ড্র’র আয়োজন ছিল। প্রতিযোগিতা শেষে পুরস্কার বিতরণের আয়োজন করা হয়। কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেলের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন ও রাইফেল ক্লাবের সহ-সভাপতি আমিনুর রশীদ কাদেরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তনচংগ্যা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর নাহার বেগম, কাপ্তাই মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি খোরশেদুল আলম কাদেরী, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাদির আহমেদ, তথ্য কর্মকর্তা মোঃ হারুন, কাপ্তাই মানবাধিকার কমিশনের মহিলা সম্পাদিকা নুর বেগম মিতা, কাপ্তাই প্রেসক্লাবের সভাপতি কবির হোসেন ও কাপ্তাই কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সভাপতি মোঃ ইব্রাহিম খলিল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাংবাদিক কাজী মোশাররফ হোসেন। কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেল শ্যুটিং প্রতিযোগিতার প্রশংসা করেন। প্রতিবছর বিজয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবসে রাইফের ক্লাবের উদ্যোগে শ্যুটিং প্রতিযোগিতা অব্যাহত রাখায় তাঁরা সন্তোষ প্রকাশ করেন। এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে দক্ষ শ্যুটার তৈরি হবে বলেও তাঁরা আশা প্রকাশ করেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির সমালোচনার জবাবে দুই মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন হওয়ার বিষয়টি তুলে ধরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এতে প্রমাণিত হয়েছে যে দেশে বিচার বিভাগ স্বাধীন। আপনি কি তার যুক্তিতে সন্তুষ্ট?