সোমবার, ২২ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

সোমবার, ০৮ অক্টোবর, ২০১৮, ০৯:০৩:৩৪

বিএনপির বিরুদ্ধে ‌‘গায়েবি মামলা’ ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পুলিশের-হাইকোর্ট

বিএনপির বিরুদ্ধে ‌‘গায়েবি মামলা’ ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পুলিশের-হাইকোর্ট

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ‘গায়েবি মামলা’ তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে করা রিটের শুনানি শুরু হয়েছে। শুনানিকালে কয়েকটি মামলার এজাহার পর্যবেক্ষণ করে হাইকোর্ট বলে, এ ধরনের মামলায় পুলিশের ইমেজ ও বিশ্বাসযোগ্যতা নষ্ট হয়। আদালত বলে, খন্দকার মাহবুব বারের সিনিয়র আইনজীবী। তিনিও ককটেল মেরেছেন? এটা হাস্যকর। বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের ডিভিশন বেঞ্চ সোমবার এ মন্তব্য করেন।
এ পর্যায়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী একরামুল হক টুটুল বলেন, উনি তো আইনজীবীই নন। একটি রাজনৈতিক দলের পদধারী। তখন আদালত বলেন, এটা কী বললেন, তিনি রাজনীতি করতে পারবেন না এটা তো আইনে নেই। আর আগে আইনজীবীরাই বেশি রাজনীতিতে যুক্ত ছিল।
এর আগে রিটের শুনানিতে অংশ নেন ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, যেসব গায়েবি মামলা হয়েছে সেগুলোর অভিযোগ একই। গতবাধা।
শুনানির জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সময় চাইলে আদালত তা মঞ্জুর করেন। তাকে উদ্দেশ্য করে আদালত বলে, আপনি যদি নির্দেশনা দিতেন তাহলে এ ধরনের মামলা হত না। এতে পুলিশের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  ইমরুলের নৈপুণ্যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়ে শুরু টাইগারদের

  সেভিয়াকে উড়িয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে বার্সেলোনা

  রাঙ্গামাটিতে অনুষ্ঠিত হলো পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা

  রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ উদ্বোধন

  শেষ মুহূর্তের গোলে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ব্রাজিলের জয়

  রাঙ্গামাটি মারী ষ্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ

  বিশ্বকাপের স্বপ্ন শেষ হতে পারে ভারতের যে ৫ ক্রিকেটারের

  নারীদের প্রথম টি-২০ র‌্যাংকিং-এ নবমস্থানে বাংলাদেশ

  বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের শিরোপা জিতল ফিলিস্তিন

  জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য দল ঘোষণা বাংলাদেশের

  জাতীয় মহিলা কাবাডি দলে জুরাছড়ির চার কিশোরী তাদের চোখে দেশজয়ের স্বপ্ন

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?