বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০২ অক্টোবর, ২০১৮, ০৩:০১:১৯

মেয়েদের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই আজ

মেয়েদের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই আজ

স্পোর্টস ডেস্কঃ-বাংলাদেশ দল আজ ভুটানে অনুষ্ঠানরত সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে নেপালের মুখোমুখি হবে ‘বি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যকে সামনে রেখে। এই দুই দল নিজেদের গ্রুপে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম খেলায় জিতে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে রেখেছে। আজ মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টায় থিম্পুর চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে খেলাটি শুরু হবে।
নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশ সুবিধাজনক স্থানে রয়েছে। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে হলে নেপালকে জিততে হবে। আর বাংলাদেশ যদি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে চায় তাহলে নিজেদের পক্ষে ড্র করলেই চলবে। কারণ বাংলাদেশ গোল গড়ে এগিয়ে রয়েছে। নেপাল প্রথম খেলায় ১২-০ গোলে পাকিস্তানকে হারিয়েছে। বাংলাদেশ ১৭-০ গোলে পাকিস্তানকে হারিয়েছে। গোল পার্থক্যে বাংলাদেশ এগিয়ে। তাই ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন।
আজকের লড়াইয়ের আগেও নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় আছে। নেপালের মাঠে নেপালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অভিজ্ঞতা আছে বর্তমান নারী ফুটবলারদের। কারণ সানজিদা, মারিয়া, মানিকা, কৃষ্ণা, মৌমুমী, শিউলীদের তাদের বিরুদ্ধে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন এসব কারণে ড্রয়ের চিন্তা মাথায় রাখছেন না।
তিন বছর পাকিস্তান আন্তর্জাতিক ফুটবলে খেলতে পারেনি। নিষেধাজ্ঞা এবং নিজেদের মধ্যে কোন্দল, সব কিছু মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল হতে দূরে থাকা পাকিস্তান আবার ফিরেছে। পুরুষ ফুটবলে ঢাকায় সাফের সেমিফাইনালে খেলেছে পাকিস্তান। ভুটানে নারী ফুটবলে বাংলাদেশ টার্গেট করেছিল পাকিস্তানকে হারিয়ে এগিয়ে থাকবে। গোল সংখ্যাটাও বাড়িয়ে রাখার টার্গেট ছিল। বাংলাদেশের দুটো লক্ষ্যই পূরণ হয়েছে।
মেয়েরা ১৭ গোলে পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছে। গোল বন্যায় ভেসে পাকিস্তান এখন ভুটান ছেড়ে ঘরের পথে। বাংলাদেশের সিরাত জাহান স্বপ্না, মিসরাত জাহান মৌসুমী, তহুরা খাতুন, আঁখীদের ফুটবল নৈপুণ্যে মুগ্ধ ফুটবল দর্শক। পাকিস্তানের বিপক্ষে এক খেলায় তিন হ্যাটট্রিক হয়েছে।
সিরাত জাহান মৌসুমী ডাবল হ্যাটট্রিক করেন। হ্যাটট্রিক করেছেন মারজিয়াও। পাকিস্তান পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশের কাছে। এতো বড় জয় পেয়েও সিরাত জাহান স্বপ্নার আক্ষেপ আরো বড় ব্যবধানে জিততে পারত বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলার শেষে সংবাদ সম্মেলনে সিরাত জাহান স্বপ্না বলেন, ‘আমরা অনেক গোল মিস করেছি। তা না হলে আরো বেশি গোলে জিততে পারতাম।’ নেপালী ফুটবলাররা বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের একপেশে লড়াই দেখেছেন। তার আগে বাংলাদেশের কোচ খেলোয়াড়রাও নেপালের খেলাটা দেখে রেখেছেন। দুই দলই দুই দলকে জেনে নিয়েছে। যে কারণে আজকে নতুন একটি ম্যাচ হিসাবে মাঠে নামতে চান কোচ ছোটন।
অন্য গ্রুপে ভারত, ভুটান এবং মালদ্বীপ রয়েছে। ভারত ৪-০ গোলে ভুটানকে হারিয়েছে। ভুটান দ্বিতীয় খেলায় ১৩-০ গোলে মালদ্বীপকে হারিয়েছে। আজ বাংলাদেশ ও নেপাল মাঠে নামার আগে ভারত ও মালদ্বীপ খেলবে বিকাল ৪টায়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে বিভ্রান্তির জন্য সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এটা সুশাসনের অভাবের ফল। আপনি কি তা মনে করেন?