Chtnews24.com
কেআরসি স্কুলের টিউবওয়েল চুরি ছাত্রছাত্রীর পানীয় জলের কষ্ট
Tuesday, 25 Jun 2019 19:14 pm
Reporter :
Chtnews24.com

Chtnews24.com

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনায় অবস্থিত কেআরসি সরকারি প্রাথমিক ও কেআরসি উচ্চবিদ্যালয় প্রাঙ্গনে স্থাপিত টিউবওয়েলটি গত কয়েকদিন আগে চুরি হয়। টিউবওয়েল চুরি হবার পর থেকে স্কুলের সহস্রাধিক ছাত্রছাত্রী পানীয় জলে সীমাহীন কষ্ট ভোগ করছে। শুধু খাবার পানী নয় টিউবওয়েল না থাকায় শৌচাগারও ব্যবহার করা যাচ্ছেনা। এর ফলে অনেক শিক্ষার্থী বিশেষ করে ছাত্রীরা অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।
কেআরসি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ নুরুল আলম বলেন কয়েকদিন আগে একদিন গভীর রাতে স্কুলের টিউবওয়েলটি চুরি হয়। টিউবওয়েল চুরির বিষয়টি তাৎক্ষনিক কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান, কাপ্তাই থানার ওসি এবং কর্ণফুলী পেপার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে অবহিত করা হয়েছে। কেআরসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কেআরসি উচ্চবিদ্যালয় মিলিয়ে প্রায় সহস্রাধিক ছাত্রছাত্রী অধ্যয়ন করছে। পানি না থাকায় ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে আসাও কমিয়ে দিয়েছে। এর ফলে লেখাপড়ার ব্যাঘাত ঘটতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা করছেন।
জানা গেছে কেআরসি স্কুলে কোন নিরাপত্তা প্রহরির ব্যবস্থা নেই। এর ফলে সন্ধ্যার পর থেকেই স্কুলে বখাটেদের আড্ডা বসে। অনেক সময় স্কুল কক্ষের দরজা ভেঙ্গে বখাটেরা ক্লাস রুমে বসে নেশা করে। স্কুলে নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য অন্তত রাতে একজন নিরাপত্তা প্রহরির ব্যবস্থা করা জরুরী বলেও অনেকে অভিমতে জানিয়েছেন। কর্ণফুলী পেপার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালকও একজন নৈশ প্রহরি নিয়োগ দেওয়ার জন্য কোরসি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। একজন নৈশ প্রহরি নিয়োগ দিলে তাকে মাসে কমপক্ষে ৮ হাজার টাকা বেতন দিতে হবে উল্লেখ করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক বলেন, কেআরসি উচ্চবিদ্যালয় একটি গরীব স্কুল। এই স্কুলের প্রধান শিক্ষক বেতন পান মাসে তিন হাজার টাকা। ৫জন শিক্ষক মাসিক বেতন নেন প্রায় ৮ হাজার টাকা। এরকম অবস্থায় নৈশ প্রহরি নিয়োগ দেওয়া স্কুলের পক্ষে সম্ভব নয় বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক রাঙ্গামাটি ২৯৯ আসনের সাংসদ দীপঙ্কর তালুকদারের সহযোগিতা কামনা করেন।