Chtnews24.com
থানচিতে একমাস বিশদিন পর পাওয়া গেল নিখোঁজ ব্যক্তির কঙ্কাল
Monday, 03 Jun 2019 18:43 pm
Reporter :
Chtnews24.com

Chtnews24.com

শহিদুল ইসলাম (শহিদ), থানচিঃ-থানচিতে নিখোঁজ হওয়া ফেরিওয়ালা এক ব্যবসায়ীকে একমাস বিশদিন পর কঙ্কাল পাওয়া গেছে। সোমবার (৩ জুন) দুপুরে আয়ুবের লাশ পাহাড়ের নিচে ঝিড়ির গর্তের মধ্যে কঙ্কাল অবস্থায় পাওয়া যায়।
জানা যায়, গত ৫ এপ্রিল শুক্রবার থেকে নিখোঁজ হয় মোহাম্মদ আয়ুব (৫৫) নামে, বাড়ি লোহাগাড়া থানার পশ্চিম কলাউজান নিখোঁজ হন। নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তি প্রায় ১৫ বছর ধরে থানচি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নিজে বহন করে দা ছুরি ও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের জুয়েলারি পাড়া মহল্লায় গিয়ে বিক্রি করতেন বলে জানা গেছে।
আয়ুব পরিবার মোবাইলে যোগাযোগ করে বেশ কয়েকবার সংযোগ না পাওয়া ও খোঁজ করে সন্ধান না পেয়ে থানচি থানায় জিডি করেন। থানচি থানায় নাম্বার ৯২৪ জিডির পরিপ্রেক্ষিতে শুরু হয় থানা পুলিশের উদ্ধার অভিযানে তৎপরতা। এরই ধারাবাহিকতায় থানচি থানা পুলিশ অপহরনের জড়িত সন্দেহে দুইজনকে আটক করে। আটককৃতরা হলো, ছাইঅংপা ম্রো (৩০) এবং তাইরু ম্রো (২৪) তাদের উভয়ের বাড়ি করা হয় থানচি বাজার থেকে তাদের কথা মত থানচি থানা হতে প্রায় ১০ কিলোমিটার দুরে সদর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড চমিপাড়া অপহরন হওয়া আয়ুব (৫৫) এর মৃতদেহ উদ্ধার করে।
জানা যায় গত ১২ এপ্রিল আয়ুবের বাড়ি থেকে ফোন করলে আয়ুবকে পরদিন সে বাড়িতে যাবে বলে তার পর তার ফোন বন্ধ পাওয়ায় লোহাগাড়া থানায় ডায়রি করেন তার পরিবার রেকড লিষ্ট বের করা হলে থানচি এলাকার চমি পাড়ার স্থান ধরা পরে।
উদ্ধার অভিযানে নেতৃত্বধানকারী থানচি থানার অফিসার ইনচার্জ জোবাইরুল হকের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স এস আই জালাল, এস আই অনুপ কুমার। এস আই মোশাররফ, এ এস আই নিপুন , এ এস আই রুপন দাশ সহ আটক হওয়া দুইজনের তথ্যের আলোকে উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করে।
৩ই জুন সোমবার ভোর ৫.৪৫ মিনিটে অভিযানে রওনা হই এক পর্যায় দুপুর ১২ .১০ মিনিটের সময় অপহরন হওয়া আয়ুবের লাশ পাহাড়ের নিচে ঝিড়ির গর্তের মধ্যে নিখোজ আয়ুবের মৃত কঙ্কাল পাওয়া যায়।
থানচি থানার অফিসার ইনচার্জ জোবাইরুল হক বলেন, নিলট পাড়ার রাস্তার মধ্যে অপহরন করে তার কাছে থাকা ত্রিশ হাজার টাকা নিয়ে আটককৃত ব্যাক্তিদয় ঘাড়ে দা দিয়ে আঘাত  ও মাথায় ঘুসি মেরে আঘাত করে, মেরে ফেলে বলে আটককৃত দুইজন স্বীকার করেছে।