Chtnews24.com
জনগন কাঙ্খিত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হন তা হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে-বাবলু কুমার সাহা
Friday, 07 Dec 2018 19:43 pm
Reporter :
Chtnews24.com

Chtnews24.com

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-রাঙ্গামাটি স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য বিষয়ক মাসিক সমন্বয় সভা শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) কাপ্তাই উপজেলা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। গুরুত্বপূর্ণ এই সভায় রাঙ্গামাটি জেলার ১০ উপজেলার সকল স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, জেলার বিভিন্ন উপজেলায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত সকল চিকিৎসক, কমিউিনিটি হাসপাতালের কর্মী, স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করেন এমন বেসরকারি সংস্থার সকল কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (হাসপাতাল) বাবলু কুমার সাহা। রাঙ্গামাটি জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ শহীদ তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপ-সচিব মোহাম্মদ মিকাইল ও কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেল। বক্তব্য রাখেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ নীহর রঞ্জন নন্দী। সঞ্চালনায় ছিলেন সুপতি রঞ্জন চাকমা। সভায় রাঙ্গামাটি জেলার সকল হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট ডাক্তাররা হাসপাতালের সার্বিক চিকিৎসা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।
এসময় প্রধান অতিথি বাবলু কুমার সাহা প্রতিটি উপজেলায় স্বাস্থ্য সেবা কেমন চলছে, কোন হাসপাতালে কতজন ডাক্তার আছেন, তাঁরা নিয়মিত হাসপাতালে আসছেনন কিনা, রোগীরা যথাযথ চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে কিনা, ম্যালেরিয়া, যক্ষা, গর্ববতি মহিলাদের সন্তান প্রসব, ইউপিআই কর্মসুচি, কমিউনিটি ক্লিনিক, স্বাস্থ্য সেবায় এনজিও গুলোর ভূমিকা ইতাদি বিষয়ে জানতে চান। তিনি বলেন, সরকার স্বাস্থ্য খাতে হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করছে। এর বিনিময়ে জনগণ যদি কাঙ্খিত সেবা না পায় সে ক্ষেত্রে সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটবেনা। জনগণের দোর গোড়ায় চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেবার জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে। কারো গাফিলতিতে যদি জনগন কাঙ্খিত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হন তা হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গ্রাম ও পাড়া মহল্লায় বসবাসকারি জনগণ যারা দুরের হাসপাতালে এসে চিকিৎসা সেবা নিতে পারেনা তাদের জন্য পাড়ায় পাড়ায় গড়ে তোলা হয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিক। কমিউনিকি ক্লিনিকে যাতে সার্বক্ষনিক স্বাস্থ্য কর্মী উপস্থিত থাকে এবং প্রাথমিক চিকিৎসা ও প্রয়োজনীয় ঔষুধ যাতে রোগী পায় সেটি নিশ্চিত করতে তিনি সকল স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। যেকোন প্রয়োজনে তাঁর সাথে যোগাযোগ করার জন্য তিনি সবাইকে তাঁর মোবাইল নাম্বারও দেন। রাজধানী ঢাকায় বসেও তিনি যাতে রাঙ্গামাটির যে কোন দুর্গম অঞ্চলে কর্মরত ডাক্তার ও স্বাস্থ্য কর্মীর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন সে ব্যাপারেও তিনি গুরুত্বারোপ করেন। কর্মক্ষেত্রে নিয়মানুবর্তিতা, আন্তরিকতা, সেবা, সততা, ভালোবাসা ও বিশ্বাস এই বিষয় গুলি মেনে চললে জনসাধারণ অবশ্যই উপকৃত হবেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।