মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ০৯ জুন, ২০১৮, ০৭:৪৬:০০

খালেদা স্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন-চিকিৎসক

খালেদা স্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন-চিকিৎসক

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গত ৫ জুন পড়ে গিয়ে ৫-৭ মিনিট অজ্ঞান ছিলেন।  চিকিৎসকরা ধারণা করছেন, খালেদা মাইল্ড স্ট্রোক করেছিলেন।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে শনিবার (৯ জুন) বিকালে নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করেছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা।
কারাগার থেকে বেরিয়ে চিকিৎসকরা দাবি করে বলেন, গত ৫ জুন মাইল্ডস্ট্রোক করে অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এসময় তারা খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন।
চিকিৎসক দলে ছিলেন, মেডিসিনের এফএম সিদ্দীকী, নিউরো সার্জন ওয়াহিদুর রহমান, চক্ষু বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. আবদুল কুদ্দুস ও ডা.মামুন রহমান।
এর আগে দুপুরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চিকিৎসকদের কারাগারে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান।
প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন রাজধানীর বকশীবাজারে স্থাপিত অস্থায়ী পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  যেকোনো মুহূর্তে সরকার হুড়মুড় করে পড়ে যাবে-রিজভী

  ফেসবুকে গুজব-মিথ্যাচার শক্ত হাতে দমন করা হবে-তথ্যমন্ত্রী

  বিএনপির নির্বাচনে আসার পথে বাধা সৃষ্টি করছে আওয়ামী লীগ- মির্জা ফখরুল

  উনি মারাত্মক কথা বলেছেন, ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে ফখরুল

  বিএনপি ওয়ান ইলেভেনের মতো ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি সৃষ্টির চক্রান্ত করছে-কাদের

  নির্বাচনের আগে সংলাপের সম্ভাবনা নেই-ইসি

  বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফেরাতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চলছে-ওবায়দুল কাদের

  নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সংসদ নির্বাচনের তফসিল

  খালেদা জিয়া ৭৪ বছরে পা রাখলেন

  ১/১১-এর চেয়েও খারাপ বর্তমান সরকার: মির্জা ফখরুল

  দুঃস্বপ্ন দেখছে বিএনপি-ওবায়দুল কাদের

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?