বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৮, ০১:১০:০৮

দেশ থেকে অশুভ শক্তি বিনাশে সকল সম্প্রদায়ের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

দেশ থেকে অশুভ শক্তি বিনাশে সকল সম্প্রদায়ের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

রাঙ্গামাটিঃ-মঙ্গঁল প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে রাঙ্গামাটির তবলছড়িস্থ শ্রী শ্রী রক্ষাকালী মন্দিরের শারদীয়া দূর্গোৎসবের উদ্বোধন করলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। সোমবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় মহাষষ্টী পুজার আনুষ্ঠানিকতায় বৃষ কেতু চাকমা’সহ মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দরা মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলন করেন।
এ সময় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য মনোয়ারা আক্তার জাহান, ৩ নং পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলার পুলক দে, কালী মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি প্রদীপ ঘোষ, মন্দির পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি শ্যামল মিত্র, শারদীয়া দূর্গাপূজা কমিটির আহবায়ক অমিত শীল লাভলু, দূর্গাপূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজন নন্দী’সহ মন্দির পরিচালনা কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
রক্ষা কালী মন্দিরের দূর্গা মন্ডপে মঙ্গঁল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের পর চেয়ারম্যান বলেন, পৃথিবীতে যখন পাপাচারে ছেয়ে যায় মা দুর্গা তখন আবির্ভূত হয়। তেমনি আমাদের দেশের জঙ্গীবাদ দমনে বর্তমান সরকার অসুর বিনাশ করেছে। তিনি বাংলাদেশ থেকে অশুভ শক্তি বিনাশে সকল সম্প্রদায়ের মানুষকে এক হয়ে কাজ করার আহবান জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

  খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গণআন্দোলন বগুড়া থেকেই-মির্জা ফখরুল

  এরশাদ সুস্থ আছেন, শিগগিরই সুস্থ হয়ে দেশে ফিরবেন-জি এম কাদের

  রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব তুলে ধরার চেয়ে নিজেদের বিশ্লেষণ করুন-তথ্যমন্ত্রী

  এ সরকার লুটপাট করে বিজয় উৎসব করছে-মির্জা ফখরুল

  নিজেদের কারণে বিএনপির বিপর্যয় হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী

  নৈতিক পরাজয় ঢাকতেই আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব-মির্জা ফখরুল

  এরশাদ গুরুতর অসুস্থ, ঠিকমত খেতেও পারছেন না

  পরাজিতদের অক্সিজেন দেওয়ার চেষ্টা করছে টিআইবি-তথ্যমন্ত্রী

  জীবন দিয়ে ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনবে মানুষ-রিজভী

  পুলিশের ‘গ্রেপ্তার বাণিজ্য’ এখন নিয়মে পরিণত হয়েছে-মির্জা ফখরুল

  ব্যর্থতার দায় নিয়ে মির্জা ফখরুলের পদত্যাগ করা উচিত-ওবায়দুল কাদের

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বৈষম্য কমাতে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য পেনশন ব্যবস্থা চালুর পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান। এটা করা হলে বৈষম্য কমবে বলে মনে করেন?