শনিবার, ১৮ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০১ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৭:৫৭

সংলাপ ছাড়া সমস্যার সমাধান হবে না-মির্জা ফখরুল

সংলাপ ছাড়া সমস্যার সমাধান হবে না-মির্জা ফখরুল

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা সবসময় সংলাপ চেয়েছি। আমরা মনে করি সংলাপ ছাড়া কোন সমস্যার সমাধান হবে না। সরকার যে অবস্থা নিয়ে আছে সে অবস্থা হচ্ছে তারা তাদের একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে পাকাপোক্ত করতে কোন আলোচনা ছাড়াই তথাকথিক সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন করতে চায়। মানুষ এটা মেনে নেবে না। এদেশের মানুষ মনে করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ছাড়া এ দেশে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়।
ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এ বছরের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা, জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা এবং একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের ব্যবস্থা করা। আমরা বলেছি ২০১৮ সাল জনগণের বছর, গণতন্ত্রের বছর, বিজয়ের বছর। জনগণই সেটা প্রতিষ্ঠিত করবে। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে গণতন্ত্রকে মুক্ত করবে নতুন বছরে।
ছাত্রদলের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে সোমবার বিকালে শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দেয়ার পর সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন তিনি।
মির্জা ফখরুল দেশের বিভিন্ন স্থানে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে পুলিশি হামলার অভিযোগ করে এর নিন্দা জানান। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নন এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের আন্দোলনের প্রতি বিএনপির পক্ষ থেকে সমর্থন জানিয়ে ফখরুল বলেন, শিক্ষকদের ন্যায় সঙ্গত আন্দোলনে বিএনপির পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।
ফখরুলের সঙ্গে ছিলেন শামসুজ্জামান দুদু, আমান উল্লাহ আমান, রুহুল কবির রিজভী, হাবিব-উন নবী খান সোহেল, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, নাজিম উদ্দিন আলম, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, রাজীব আহসান, আসাদুজ্জামান আসাদ, মামুনুর রশিদ মামুন, আজমল হোসেন পাইলট, নাজমুল হাসান, আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, কাজী মোকতার হোসেন, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, মির্জা ইয়াসীন আলীসহ কেন্দ্রীয় ছাত্রদল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ, উত্তর, পূর্ব, পশ্চিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, বাঙলা কলেজসহ রাজধানীর বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?