রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১২ মার্চ, ২০১৭, ১১:২৪:৫২

অত্যাধুনিক নয়, ৮৯ সালের প্রযুক্তির সাবমেরিন: সংস্কার করে বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করেছে চীন

অত্যাধুনিক নয়, ৮৯ সালের প্রযুক্তির সাবমেরিন: সংস্কার করে বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করেছে চীন

বিশেষ প্রতিনিধি: প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর বহরে যুক্ত হওয়া দুটি সাবমেরিন আজ রোববার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকাল সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রামে পৌঁছে নৌ-বাহিনীর নেভাল বেইসে চীন থেকে কেনা সাবমেরিন দুটির উদ্বোধন করবেন তিনি। 

এই সাবমেরিন নিয়ে সরকারি নেতা এবং আওয়ামী পন্থী মিডিয়ার বেশ উৎসাহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। অনেকে এগুলোকে কথিত অত্যাধুনিক সাবমেরিনের তকমা লাগিয়ে প্রচার করছে।
তবে চীনের সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গেছে, টাইপ ০৩৫জি সাবমেরিন চীনা নৌবাহিনীতে ইতোমধ্যে বাতিল ঘোষিত একটি সাবমেরিন। ১৯৭৪ সালে প্রথম এই গোত্রীয় সাবমেরিন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে চীন। এরপর সর্বশেষ ১৯৮৯ সালে এই প্রযুক্তি আপগ্রেডে করা হয়।
বাংলাদেশ যে মডেলের সাবমেরিন কিনছে সেগুলোর সংখ্যা মোট ১২টি ছিল চীনা নৌবাহিনীতে। এগুলো গত কয়েক বছর আগে চীন তাদের সমর শক্তিকে অত্যাধুনিক করার প্রক্রিয়ায় সার্ভিস থেকে সরিয়ে ফেলে। এখন তারা আরো উন্নত প্রযুক্তি সাবমেরিন ব্যবহার করে। সার্ভিস থেকে সরিয়ে ফেলা পুরোনো Type 035G সাবমেরিন সংস্কার করে বাংলাদেশের কাছে দুটি বিক্রি করা হয়েছে।
প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

এই বিভাগের আরও খবর

  শান্তিপূর্ণ কাউন্সিল ও সমাবেশে বাধাদানের প্রতিবাদে কুদুকছড়িতে তিন নারী সংগঠনের বিক্ষোভ

  পানছড়িতে ত্রিপুরা নারীকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ৫ নারী সংগঠনের উদ্বেগ ও নিন্দা

  ইউনিভার্সাল পিরিয়ডিক রিভিউ (ইউপিআর) ও বাংলাদেশের আদিবাসীদের অধিকার শীর্ষক আলোচনা সভার

  ভূষণছড়া ইউপির নবনির্বাচিত সদস্যদের শপথ গ্রহণে অপরাগতা

  অত্যাধুনিক নয়, ৮৯ সালের প্রযুক্তির সাবমেরিন: সংস্কার করে বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করেছে চীন

  রাজধানী থেকে ইয়াবাসহ যুবদল নেতা গ্রেফতার

  সর্বনাশে যথেষ্ট এক আসলামই

  'মু‌ক্তিযু‌দ্ধের সময় সেনা কর্মকর্তা‌দের হত্যার চক্রান্ত হয়েছিল'

  ছাত্রদল নেতার জন্য থানা ঘেরাও, প্রশ্নের মুখে যুবলীগ-ছাত্রলীগ

  এনআরবিসি ব্যাংক নিয়ে দৈনিক প্রথম আলোর মিথ্যাচার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?