Zoom In Zoom Out No icon

শক্তিশালী ইসি গঠনে সংলাপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-রাষ্ট্রপতি

রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০৯:৫৯:১৭
শক্তিশালী ইসি গঠনে সংলাপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-রাষ্ট্রপতি

ডেস্ক রির্পোটঃ-রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। ইসি পুনর্গঠনের বিষয়ে বঙ্গভবনে রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) বিএনপি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সংলাপ শেষে এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন রাষ্ট্রপতি। সংবাদ বাসসের।
ইসি পুনর্গঠনের বিষয়ে দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে রবিবার ১১ সদস্যের বিএনপি প্রতিনিধিদল বঙ্গভবনের দরবার হলে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনা করেছে। আলোচনার পর বঙ্গভবনের একজন মুখপাত্র সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বৈঠকে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনায় প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে।’
রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন বলেছেন, ‘রাষ্ট্রপতি বিএনপি প্রতিনিধিদলকে বলেন যে, আজকের আলোচনা এবং আপনাদের সুচিন্তিত মতামত শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’
আগামী বছর (২০১৭ সাল) ফেব্রুয়ারি মাসে কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হবে। নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের বিষয়ে রবিবার থেকে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছেন রাষ্ট্রপতি। এরই অংশ হিসেবে রবিবার বিকেলে বঙ্গভবনে বিএনপি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনা করেন আবদুল হামিদ।
খালেদা জিয়া ও বিএনপি প্রতিনিধি দলকে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘আলাপ-আলোচনায় মাধ্যমে যে কোনো ইস্যু সমাধানের বহু পথ খুঁজে পাওয়া যায়। আমার বিশ্বাস, আপনাদের প্রস্তাবসমূহ পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।’
এক ঘন্টা স্থায়ী বৈঠকে রাষ্ট্রপতি একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠনে বিএনপিসহ সব রাজনৈতিক দলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।
আলোচিনাকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া একটি সার্চ কমিটি ও নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে তার দলের প্রস্তাবসমূহ তুলে ধরেছেন।
তিনি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন এবং গণপ্রতিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের জন্য তার দলের প্রস্তাবও তুলে ধরেছেন রাষ্ট্রপতির কাছে।
বেগম জিয়া আলোচনার জন্য বিএনপিকে আহবান জানানোয় রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানান এবং নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের উদ্যোগে রাষ্ট্রপতির সাফল্য কামনা করেন।
তিনি বলেছেন, ‘তার দল নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতিকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।’
বিএনপি’র প্রতিনিধিদলে অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন-মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান এবং আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
এ সময় রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন।
রাষ্ট্রপতি আগামী ২০ ডিসেম্বর জাতীয় পার্টির সঙ্গে, ২১ ডিসেম্বর লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সঙ্গে এবং ২২ ডিসেম্বর জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-ইনু) সঙ্গে বৈঠক করবেন।

সর্বশেষ সংবাদ










Archive
Prev
Year Month
Next

Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat
Sun
প্রশ্ন : বিএনপিসহ সব দল চলমান রাষ্ট্রপতির সংলাপের মধ‌্য দিয়ে গঠিতব‌্য নির্বাচন কমিশনের অধীনে জাতীয় নির্বাচনে আসবে বলে আশা করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তা হবে বলে আপনি মনে করেন?
হ্যাঁ
না
কোন মন্তব্য নাই