শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৮ নভেম্বর, ২০১৮, ০৭:৩০:৪৫

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর

ডেস্ক রিপোর্টঃ-আগামী ২৩ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণের দিন রেখে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত, তা বাছাই হবে ২২ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর। তার ২৩ দিন পর হবে ভোট গ্রহণ।
৩০০টি আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচনে এবার ভোট দেবেন ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০ ভোটার।
নির্বাচন নিয়ে প্রধান দুই রাজনৈতিক শিবিরে মতানৈক্যের অবসান না ঘটার মধ্যে বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে তফসিল ঘোষণা করেন সিইসি। এসময় তিনি রাজনৈতিক দলকে সহনশীল হওয়ার আহবান জানান।
সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে তফসিল ঘোষণা পেছানোর উপায় ছিল না বললেও নূরুল হুদা ইতোপূর্বে বলেছেন, সব দল চাইলে সংবিধান নির্ধারিত সময়ের মধ্যে থেকে কমিশন ভোট গ্রহণের সময়সূচি কয়েকদিন পেছানোর কথা ভাবতে পারে।
তফসিল ঘোষণার ভাষণে সিইসি আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করে নিজেদের মতানৈক্যের অবসান আলোচনার মাধ্যমে ঘটাতে দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। অধিকাংশ দলের বর্জনের মধ্যে দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রেক্ষাপটে একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করে আসছেন সিইসি।
তফসিল ঘোষণার ঠিক আগে মতবিভেদ কাটাতে দুই প্রধান রাজনৈতিক শিবিরে সংলাপ হলেও তাতে এখনও কোনো সমঝোতা হয়নি।
বিএনপিকে নিয়ে গঠিত কামাল হোসেনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে, সংসদ ভেঙে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাইছে। অন্যদিকে সংবিধানের বাইরে কোনোভাবেই যেতে নারাজ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।
দুই দফা সংলাপ ব্যর্থ হওয়ার পর ফের আলোচনার আশা রেখে তফসিল পেছানোর আহ্বান ছিল ঐক্যফ্রন্টের; কিন্তু ক্ষমতাসীন দলের সমর্থন পাওয়ার পর তফসিল ঘোষণার পথেই হাঁটে ইসি।
তফসিল ঘোষণা করে বিরোধী শিবিরকে আশ্বস্ত করে সিইসি বলেছেন, নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে ইসি সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে।
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে সেনা মোতায়েনের দাবি জানালেও তা উপেক্ষিত হয়েছে। সিইসি বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকবে সশস্ত্রবাহিনী। সবাইকে আচরণ বিধি ও আইন মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে যাতে সহিংসতা না হয় সেদিকে সব দলকে সচেতন থাকতে হবে।
বহুল আলোচিত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) পক্ষে বলে তিনি শহরাঞ্চলে কিছু সংখ্যক কেন্দ্রে যন্ত্রে ভোট গ্রহণ হবে, তা ভাষণে স্পষ্ট করেননি নূরুল হুদা।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ইভিএমের পক্ষে অবস্থান জানালেও তার ঘোর বিরোধিতা করছে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। প্রশ্ন ওঠায় ইভিএম ব্যবহার এবার না করার পক্ষে মত জানিয়েছে অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর অধিকাংশ।
প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ চলার মধ্যে গত কয়েকদিনে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে নিজেদের বৈঠকের প্রেক্ষাপটে সিইসি বলেছেন, সার্বিকভাবে দেশে ভোটের অনুকূল আবহ সৃষ্টি হয়েছে।
সহিংসতা ও বর্জনের মধ্যে দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার প্রেক্ষাপটে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা যেন প্রতিহিংসা ও সহিংসতায় পরিণত না হয়, সে দিকে দৃষ্টি দিতে সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নূরুল হুদা।

এই বিভাগের আরও খবর

  জাতির পিতা কেবল স্বাধীনতাই দিয়ে যাননি মর্যাদাও দিয়ে গেছেন-প্রধানমন্ত্রী

  নির্বাচন আর পেছানোর সুযোগ নেইঃ ৩০ ডিসেম্বরই ভোট-ইসি

  রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু নিয়ে অনিশ্চয়তা

  ষড়যন্ত্র চলছে সবাই সতর্ক থাকুন, বিদ্রোহী হলে আজীবন বহিষ্কার-প্রধানমন্ত্রী

  নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ, গাড়িতে আগুন

  নির্বাচনে সব প্রার্থীকে সমান সুযোগ দিতে হবে-সিইসি

  তসফিল ঘোষণার পর মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকঃ তফসিল ঘোষণার সময় থেকেই নির্বাচনকালীন সরকার শুরু

  প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত

  সাত দিন পেছালো নির্বাচন, ভোট ৩০ ডিসেম্বর

  ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন প্রধানমন্ত্রী

  তিতলির পর এবার ধেয়ে আসছে গাজাঃ ২৪ ঘণ্টায় শক্তিশালী হবে ঘূর্ণিঝড়

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচন না পেছালেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ভোটে আসত। আপনি কি তা মনে করেন?