মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০৯ এপ্রিল, ২০১৮, ০২:৫০:২৫

যে ৫ দফা দাবিতে রাজপথে শিক্ষার্থীরা

যে ৫ দফা দাবিতে রাজপথে শিক্ষার্থীরা

ডেস্ক রিপোর্টঃ-বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার আন্দোলন পরিষদের ব্যানারে আন্দোলন করে আসছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, কোটা বাতিল নয়, সংস্কার চাই। এজন্য তারা ৫ দফা দাবি ঘোষণা করেছেন।
সেগুলো হলো: কোটার পরিমাণ ৫৬ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করা, কোটার যোগ্য প্রার্থী না পেলে শূন্যপদে মেধায় নিয়োগ, বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা না নেওয়া, সকলের জন্য অভিন্ন বয়সসীমা নির্ধারণ করা, চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহারের সুযোগ না দেওয়া।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে প্রচলিত বিদ্যমান কোটা ব্যবস্থায় মাত্র ২.৬৩ শতাংশ নাগরিকের জন্য রয়েছে ৩৬ শতাংশ কোটা। এর মধ্যে ১.২ শতাংশ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য শতকরা ০৫ ভাগ, ১.৪০ শতাংশ প্রতিবন্ধীর জন্য ০১ ভাগ এবং ০.১৩ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা এবং তাদের পোষ্যদের জন্য শতকরা ৩০ ভাগ কোটা।
এছাড়া ১০ ভাগ নারী এবং ১০ ভাগ জেলা কোটাসহ সরকারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটার পরিমাণ ৫৬ ভাগ। বাকি মাত্র ৪৪ শতাংশ পদের জন্য লড়াই করতে হয় লাখ লাখ মেধাবী চাকরি প্রত্যাশীকে।
তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণিতের এই কোটার পরিমাণ আরও ভয়াবহ বলে অভিযোগ করছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, এই দুই শ্রেণির চাকরিতে কোটার পরিমাণ প্রায় ৭০ শতাংশ।

এই বিভাগের আরও খবর

  ইসলামের শিক্ষাকে সমুন্নত রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  তৃণমূল জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে দায়িত্ব নিতে হবে চিকিৎসকদের-ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী

  ঢাকায় বিজিবি-বিজিপি সীমান্ত সম্মেলন শুরু

  রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসন চায় বাংলাদেশ-স্পিকার

  ২০২০ ও ২০২১ সাল ‘মুজিব বর্ষ’ পালনের ঘোষণা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  রোহিঙ্গাদের সহায়তায় এডিবির ১০ কোটি ডলার অনুমোদন

  অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

  নীতিমালার ভিত্তিতে দ্রুত এমপিওভুক্তির কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে-প্রধানমন্ত্রী

  জনবসতিপূর্ণ অঞ্চলে ঢালাও শিল্পাঞ্চল করা যাবে না

  একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদনঃ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস নির্মাণ হবে আরও ১৬ জেলায়

  রোহিঙ্গাদের বর্বর নির্যাতন আমাকে নাড়া দিয়েছে, আজ আমরা সবাই রোহিঙ্গা-বিশ্বব্যাংকের প্রধান

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?