মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৭ অক্টোবর, ২০১৮, ০৬:৫৫:০১

সেন্টমার্টিনের দাবি থেকে সরে গেল মিয়ানমার

সেন্টমার্টিনের দাবি থেকে সরে গেল মিয়ানমার

ডেস্ক রিপোর্টঃ-কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন দ্বীপকে নিজেদের বলে দাবি করার পর বাংলাদেশের প্রতিবাদের মুখে সেই ভুয়া তথ্য ওয়েবসাইট থেকে সরিয়ে নিয়েছে মিয়ানমার।
রবিবার (৭ অক্টোবর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শহীদুল হক এ তথ্য জানান।
বৈঠকে কমিটিকে জানানো হয়, বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে এ বিষয়ে কড়া প্রতিবাদ জানানোর পর মিয়ানমার তাদের ওয়েরসাইট থেকে এটি সরিয়ে ফেলেছে। এসময় কমিটি এ বিষয়ে তৎপর থাকার এবং অন্য কোনো ওয়েবসাইটে কিংবা অন্য কোথাও এ ধরনের তৎপরতা রয়েছে কিনা তা মনিটর করার জন্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।
সম্প্রতি মিয়ানমার সরকারের জনসংখ্যাবিষয়ক বিভাগের ওয়েবসাইট তাদের দেশের যে মানচিত্র প্রকাশ করেছে, তাতে সেন্টমার্টিনকে তাদের ভূখণ্ডের অংশ দেখানো হয়। এরপর দেশটির রাষ্ট্রদূতকে ডেকে প্রতিবাদ জানানো হয়। এ সময় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হয়, মিয়ানমার যদি এমন আপত্তিজনক কাজ চালিয়ে যেতে থাকে তবে বাংলাদেশ উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নিরপেক্ষ থাকার নির্দেশ

  দুর্নীতিবাজদের ‘লোভের জিভ’ কেটে ফেলা হবে-দুদক চেয়ারম্যান

  জলবায়ু পরিবর্তন হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে-প্রধানমন্ত্রী

  আবারো সেন্ট মার্টিন দ্বীপকে নিজেদের দাবি মিয়ানমারের

  সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গিতে নির্বাচন পরিচালনা করতে হবে-সিইসি

  রোহিঙ্গা সংকটঃ মিয়ানমারের কাছে ক্ষতিপূরণ চাওয়ার সুপারিশ

  অবসর নিয়ে যেখানে চলে যাবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা

  আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সর্ববৃহৎ জনসম্পৃক্ত শৃঙ্খলা বাহিনী-প্রধানমন্ত্রী

  আরও চার সংসদীয় কমিটি গঠিত

  উপজেলা পর্যায় থেকে মাস্টার প্ল্যানের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

  সংবিধান লঙ্ঘনকারীদের কারণে দেশ বারবার পিছিয়ে গেছে-প্রধানমন্ত্রী

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিদায়ী সরকারের অধিকাংশ মন্ত্রীকে বাদ দিয়ে সরকার গঠন ‘স্বাভাবিক হয়নি’ মন্তব্য করে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘অস্বাভাবিক’ নির্বাচনের পর এই ‘অস্বাভাবিক’ সরকার বেশি দিন টিকবে না। আপনি কি তা মনে করেন?