বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৭, ০৭:৪৫:৫৭

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়মিত করদাতার সম্মান প্রদান

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়মিত করদাতার সম্মান প্রদান

ডেস্ক রিপোর্টঃ-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়মিত করদাতা হিসেবে ইনকাম ট্যাক্স আইডি প্রদান করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। একই সাথে ১৯৮২-৮৩ অর্থবছর থেকে নিয়মিত কর দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করায় স্বীকৃতি ফলকের মাধ্যমে তাঁকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে।
সোমবার (১৩ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে 'ইনকাম ট্যাক্স আইডি' হস্তান্তর করেন এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান।
মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানান, ১৯৮২-৮৩ করবর্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী নিয়মিত আয়কর দিয়ে একটি অনুকরণীয় উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। সেজন্য এনবিআর একটি স্বীকৃতিফলক তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে।
এবার জাতীয় পরিচয়পত্রের ডাটাবেজ ব্যবহার করে এনবিআর-এর চালু করা ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড প্রচলন করেছে। যা করদাতাদের মধ্যে বেশ সাড়া জাগিয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কর আদায়ের জন্য আয়কর মেলার পাশপাশি আয়কর সপ্তাহ, আয়কর ক্যাম্প, রাজস্ব হালখাতা, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে কর সেবা পৌঁছানো, রাজস্ব সংলাপ, কর শিক্ষণসহ নানা কর্মসূচির উদ্যোগ নিয়েছে এনবিআর।

এই বিভাগের আরও খবর

  বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে সৌদি ব্যবসায়ীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

  এইচ টি ইমাম অসুস্থ, হেলিকপ্টারে আনা হলো ঢাকায়

  প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন

  গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে সব করা হবে-সিইসি

  সম্প্রচার কমিশন গঠনে আইনের খসড়া অনুমোদন

  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধন চেয়ে রাস্তায় সম্পাদকরা

  ইউনূসের প্ররোচণায় বিশ্বব্যাংক পদ্মাসেতু অর্থায়ন বন্ধ করলেও বাঙালিদের দাবানো যায়নি-প্রধানমন্ত্রী

  বিদায় বার্নিকাট, স্বাগত মিলার

  মানসম্পন্ন শিল্পোৎপাদন বাড়ালে বিশ্বে বাণিজ্য সহজতর হবে-প্রধানমন্ত্রী

  দুর্যোগপূর্ব প্রস্তুতির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সব সংস্থার সমন্বয় সাধন আবশ্যক-রাষ্ট্রপতি

  সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলে ২০ কোটি টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?