শনিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৭ জুন, ২০১৭, ০৬:২৬:৪১

পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেওয়া অব্যাহত রয়েছে

পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেওয়া অব্যাহত রয়েছে

খাগড়াছড়ি: খাগড়াছড়িতে পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওযা অব্যাহত রেখেছে জেলা প্রশাসন। এরইমধ্যে খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলায়ও খোলা হয়েছে আরো একটি আশ্রয় কেন্দ্র। সেখানে ঝুঁকিতে বসবাসকারী বেশ কিছু পরিবারকে আশ্রয় কেন্দ্র্রে নিয়ে আসা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেখানে খাবারসহ অন্যান্য সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে।

খাগড়াছড়িতে টানাবর্ষণে জেলা সদরসহ ৯ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধস দেখা দিয়েছে। এ জেলায় পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে বসবাস করছে সহস্রাধিক পরিবার।

সম্ভাব্য পাহাড় ধসে প্রাণহানির আশঙ্কায় স্থানীয় প্রশাসন ঝুঁকিপূর্ণস্থানে বসবাসকারীদের আশ্রয় কেন্দ্রে নেওয়ার উদ্যোগ নেয়।

এর আগে প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারীদের নিরাপদে সরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। এরপরও ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাসকারীরা সরে যেতে রাজি হয়নি।

শুক্রবার খাগড়াছড়ি পৌর  শহরে  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এলিশ শারমিন এর নেতৃত্বে তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পৌর শহরের, কলাবাগান, নেন্সিবাজার, শালবন, হরিনাথ পাড়া এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারী ৩০টি পরিবারকে সরিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। অন্যদিকে মানিকছড়ি সদরে মুসলিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শনিবার সকালে একটি আশ্রয় কেন্দ্র্র খোলা হয়েছে। সেখানে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের নিয়ে আসা হচ্ছে। আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রিতদের তিনবেলা খাবার ও নগদ অর্থ সাহায্য প্রদানসহ আরো আশ্রয় কেন্দ্রে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। তবে আশ্রিতরা বলছেন সরকার যেন তাদের স্থায়ীভাবে বসবাসের ব্যবস্থা করে দেয়।

এদিকে আশ্রয় কেন্দ্র্র স্থায়ী সমাধান নয় উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক মো. রাশেদুল ইসলাম জানিয়েছেন ঝুঁকিতে বসবাসকারীদের নিরাপদে স্থায়ীভাবে বসবাসের ব্যবস্থা করার জন্য একটি প্রস্তাবনা তৈরি করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, গত মঙ্গলবার দুপুরে জেলার লক্ষীছড়িতে পাহাড় ধসে পরিমল চাকমা (৩০) নামে একজন নিহত এবং আরো সাতজন আহত হন।

এই বিভাগের আরও খবর

  খাগড়াছড়িতে জেএসএস সংস্কারপন্থী কর্মীর লাশ উদ্ধার

  মহালছড়ি জ্ঞানোদয় বন বিহারে চলছে ২দিন ব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব

  গুইমারার হাতিমুড়ায় রুস্তম বাহিনীর তান্ডব, গুচ্ছগ্রামের ৩৩ পরিবারকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র বাড়ি-ঘর ভাংচুর

  দীঘিনালায় কলেজ ছাত্রী অপহরণের অভিযোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

  প্রধান বিচারপতি দেশ ত্যাগের আগে সরকারের মুখোশ উন্মোচন করে গেছেন-ওয়াদুদ ভূইয়া

  দীঘিনালার বাবুছড়া গুচ্ছগ্রামবাসীদের মানবেতর জীবন-যাপন

  খাগড়াছড়িতে ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক

  খাগড়াছড়িতে স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

  মাটিরাঙ্গায় দুই সৎ ভাইয়ের বিচার দাবী করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: কালা মিয়া

  খাগড়াছড়িতে জামায়াতের ডাকা হরতালে জনজীবন স্বাভাবিক

  খাগড়াছড়িতে জেএমবি আদালতে, সাক্ষী অনুপস্থিত, ৭ নভেম্বর ফের দিন ধার্য্য

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ সম্পূর্ণ মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও এখন এটা বাংলাদেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনি কি তার এ বক্তব্যের সঙ্গে একমত?