সোমবার, ১৯ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০১৯, ০৭:৫৭:২৪

খাগড়াছড়িতে বন্যায় গ্রামীণ অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত

খাগড়াছড়িতে বন্যায় গ্রামীণ অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত

খাগড়াছড়িঃ-খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় বৈরি আবহাওয়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। রবিবার (১৪ জুলাই) সকাল থেকে গুড়িগুড়ি বৃষ্টি থাকলেও দুপুরের পর আবারও ভারী বর্ষণ শুরু হয়েছে। খাগড়াছড়ি জেলা সদর ও পানছড়ি উপজেলার নিম্নাঞ্চল থেকে পানি সরে যাওয়ায় বসতবাড়িতে ফিরে গেছে লোকজন।
এদিকে খাগড়াছড়ির দীঘিনালার মেরং এলাকার নিম্নাঞ্চলের কিছু জায়গায় এখনও জলাবদ্ধতার ফলে সড়ক তলিয়ে গিয়ে রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলার সাথে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এদিকে বৈরী আবহাওয়ায় পাহাড় ধস ও বন্যার আশঙ্কায় রাঙ্গামাটির সাজেক সহ পার্বত্য চট্টগ্রামের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে শুক্রবার থেকে শনিবার ভ্রমণে সর্তকতা জারি করে পর্যটকদের নিরুৎসাহিত করছে খাগড়াছড়ির প্রশাসন।
গত ৯ দিনের প্রবল বর্ষণে খাগড়াছড়ি সদরের মধুপুর বাজার, জিরোমাইল, পানছড়িসহ বেশ কয়েকটি স্থানে গ্রামীণ সড়ক, কালভার্ট ও কৃষি জমির চাষাবাদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বৈরী আবহাওয়ায় খাগড়াছড়ি জেলায় কী পরিমাণ ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে তা নিরুপণে কাজ করছে প্রশাসন।
খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, পর্যটক ও স্থানীয়দের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে দূর্গম এলাকায় যানবাহন চলাচল সীমিত করার লক্ষ্যে দুইদিনের সর্তকতা জারি করা হয়েছে। খাগড়াছড়ি সদরের পানিবন্দী লোকজন ঘরে ফিরতে পারলেও খাগড়াছড়ির দীঘিনালার শতাধিক পরিবার এখনও পানিবন্দী রয়েছে। তাদের উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ত্রাণ সরবরাহ করা হচ্ছে। দূর্যোগ মোকাবেলায় সম্মিলিত উদ্যোগে কাজ করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  খাগড়াছড়িতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী কামাল হোসেন’র অফিস দখলের চেষ্টার অভিযোগের বিরুদ্ধে মামলা

  খাগড়াছড়িতে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশ

  রামগড়ে ফের ডাকাতি, স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাসহ আটক-৪

  দুষ্ককৃতিকারীরা বঙ্গবন্ধুকে মেরেছে! তার স্বপ্ন মারতে পারে নাই-আলহাজ্ব কাশেম

  বঙ্গবন্ধু বাকী খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে, ফাঁসি‘র রায় কার্যকর করা প্রধান কাজ-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  বেতন বোনাস না পেয়ে পানছড়ি বেসরকারী মাধ্যমিক শিক্ষক-কর্মচারীদের ক্ষোভ

  খাগড়াছড়িতে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে এক রোগীর মৃত্যু, ডেঙ্গু আক্রান্ত ৬০ জন

  খাগড়াছড়িতে আদিবাসী দিবসে বাঙ্গালী সংগঠনের কর্মসূচী

  পার্বত্য শান্তি চুক্তি এখনো বাস্তবায়ন হয়নি ফলে পাহাড়ে স্থায়ী শান্তি ফিরেনি

  ডেঙ্গু শনাক্তে কিট ক্রয়ে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অনুদান দিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী

  ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন-কংজরী চৌধুরী

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?