মঙ্গলবার, ১৯ জুন ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ০৬ জুন, ২০১৮, ০৩:২১:০০

দীঘিনালা জোন বাবুছড়া ভিডিপি ক্লাবে রঙ্গিন টিভি বিতরণ

দীঘিনালা জোন বাবুছড়া ভিডিপি ক্লাবে রঙ্গিন টিভি বিতরণ

সোহেল রানা প্রতিনিধি, দীঘিনালাঃ-খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়া ইউনিয়নের ভিডিপি ক্লাব (গ্রাম প্রতিরক্ষা দল)’র মাঝে দীঘিনালা জোনের পক্ষ থেকে রঙ্গিন টিভি বিতরণ করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (৫ জুন) রাতে ভিডিপি ক্লাবের সভাপতি এবং প্লাটুন কমান্ডার মো. মোস্তফার হাতে রঙ্গিন টিভি তুলে দেন দীঘিনালা জোনের উপ অধিনায়ক মেজর মাকসুদুল নাঈম পিএসসি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাবুছড়া আর্মি ক্যাম্পের কমান্ডার মেজর এসএম কাদেরী কিবরিয়া, ওয়ারেন্ট অফিসার মো. মহিদুল ইসমাইল প্রমুখ।
ভিডিপি ক্লাবের সভাপতি এবং প্লাটুন কমান্ডার মো. মোস্তফা জানান, আমাদের ক্লাবের সদস্য কুড়ি জন। আমাদের সদস্যরা বিভিন্ন দোকানে গিয়ে বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান দেখে থাকতো। এখন জোন থেকে উন্নত মানের টিভি প্রদান করায় ক্লাবে বসেই তা দেখতে পারবে।
সেইসঙ্গে উন্নত মানের এই টিভি পেয়ে বিশ্বকাপ ফুটবলও ভালোভাবেই উপভোগ করতে পারবে বলে জানান তিনি।
দীঘিনালা জোনের উপ অধিনায়ক মেজর মাকসুদুল নাঈম জানান, বিনোদন মানুষের মন থেকে কলুষতা দূর করে। দীঘিনালা জোনের নিয়মিত কাজের অংশ হিসেবে এ ভিডিপি ক্লাবকে টিভি প্রদান করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ অব্যহত থাকবে বলেও জনান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

  খাগড়াছড়িতে বন্যায় ১ কোটি ৭ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি, চেঙ্গি খাল খননের দাবী

  বিজিবি কর্তৃক ভারতীয় মদ জব্দ

  খাগড়াছড়িতে দুর্বৃত্তের গুলিতে জেএসএস কর্মী নিহত

  দীঘিনালায় বন্যায় কবলিত এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের ত্রান বিতরন

  খাগড়াছড়িতে বন্যার কিছুটা উন্নতি হলেও দীঘিনালায় অবনতি

  খাগড়াছড়িতে পানিবন্দী মানুষদেরকে উদ্ধার ও খাবার বিতরণে সেনাবাহিনী

  স্মরণকালের খাগড়াছড়িতে ভয়াবহ বন্যাঃ মেরুং বাজার পানির নিচে

  রামগড়ে ভারতীয় মদ জব্দ

  ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের জন্য রমজান মাসটি অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  দীঘিনালায় অবৈধভাবে বালি উত্তোলন কালে বালুসহ মাহেদ্র ২টি ট্রলি জব্দ

  দীঘিনালায় অবৈধভাবে বালি উত্তোলন কালে বালুসহ মাহেদ্র ২টি ট্রলি জব্দ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?