সোমবার, ২৮ মে ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ০৭:১৩:৫৫

খাগড়াছড়িতে সিরিজ বোমা হামলাঃ ১৫ জেএমবির যাবজ্জীবন

খাগড়াছড়িতে সিরিজ বোমা হামলাঃ ১৫ জেএমবির যাবজ্জীবন

খাগড়াছড়িঃ-খাগড়াছড়িতে ২০০৫ সালের ১৭ আগষ্ট জেএমবির সিরিজ বোমা হামলা মামলার ১৬ আসামীর মধ্যে ১৫ জনকে বিষ্ফোরক দ্রব্য আইনের ৩ ধারায় যাবজ্জীবন দন্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার (২৩ এপ্রিল) বিকেল ৪টায় বিশেষ ট্রাইবুনেলের বিচারক এবং জেলা ও দায়রা জজ রত্মশ্বের ভট্টাচার্য এ রায় ঘোষণা দেন।
রায় ঘোষণার সময় মামলার ১৬ আসামীর মধ্যে ১৫জন উপস্থিত ছিলেন। তাদের মধ্যে আবুল কালাম আজাদ নামে একজনকে খালাস দিয়ে পলাতক বেলাল মিয়া সহ ১৫ জনকে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের ৩ ধারায় প্রত্যেককে যাবজ্জীবন এবং ২০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ৬মাসের জেল দেয় বিচারক। এছাড়া ৪ ধারায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় প্রত্যেককে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করেছেন।
এসময় জেএমবি সদস্যদের রায়কে ঘিরে আদালত প্রাঙ্গণে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন ছিল।
রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট বিধান কানুনগো জানিয়েছে, ২০০৫ সালের ১৭ আগষ্ট সারাদেশের মতো খাগড়াছড়ির আদালত প্রাঙ্গণ, এডিএম কোর্ট প্রাঙ্গণ ও শাপলা চত্বরের মুক্ত মঞ্চে একযোগে সিরিজ বোমা হামলা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত জেএমবি। এসময় ৩ জন আহত হয়। খাগড়াছড়ি সদর থানায় দায়েরকৃত মামলার ১৫ জন রাষ্ট্র পক্ষের সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  গুইমারায় ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার

  খাগড়াছড়িতে সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

  সরকারও পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছে-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  খাগড়াছড়ি জেলায় শিল্পকলা একাডেমির উদ্যেগে নজরুল জয়ন্তী উদযাপন

  উচ্চ শিক্ষা বৃত্তির আবেদনের আহবান করেছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ

  মাটিরাঙ্গার নিখোঁজ বাহার মিয়ার পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দিলো ৪০ বিজিবি

  দীঘিনালায় সাবেক ইউপিডিএফ সদস্য উজ্জল কান্তি চাকমাকে গুলি করে হত্যা

  খাগড়াছড়িতে দুই আঞ্চলিক গ্রুপের মধ্যে গুলিবিনিময়, এলাকায় আতংক

  মহালছড়ির মাইসছড়ি ইউনিয়নের ৪৭ লক্ষ ৮৫ হাজার টাকা বাজেট ঘোষণা

  সন্মিলিত ভাবে উন্নয়ন কর্মকান্ডের সুফল প্রত্যন্ত এলাকায় পৌছে দিতে হবে-সতীশ চন্দ্র চাকমা

  দীঘিনালায় ২ কেজি গাঁজাসহ ২ জন আটক

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?