সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৭, ০৪:১১:৫৬

খাগড়াছড়ির গুইমারায় অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

খাগড়াছড়ির গুইমারায় অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

গুইমারাঃ-খাগড়াছড়ির গুইমারাতে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞাতনামা এক উপজাতীয় যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে গুইমারা বাজার সংলগ্ন ব্রীজের ২শ গজের মধ্যে প্রজরটিলার একটি ঝিরি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ জানায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয় জনতা লাশটি দেখে পুলিশকে খবর দিলে গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সাহাদাত হোসেন টিটো‘র নেতৃত্বে পুলিশ ও সেনাবাহিনী যৌথ ভাবে লাশটি উদ্ধার করে। নিহতের নাম-পরিচয় সুনির্দিষ্ট করার চেষ্টা করছে বলে জানান গুইমারা থানা পুলিশ।
ধারনা করা হচ্ছে মঙ্গলবার গভীর রাতে তাকে অন্য কোথাও হত্যা করে লাশটি এখানে ফেলা যায়। তার ঘাড়ে ও ডান হাতে বেশ কয়েকটি জায়গার জখম করা হয়েছে। কেন বা কি কারণে হত্যাকান্ড ঘটানো হয়ছে তা জানা যায়নি। তবে হত্যাকান্ডের কারন উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে প্রাঠানো হয়েছে। তবে অজ্ঞাতমানা কয়েকজনকে আসামী করে থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।
এদিক ঘটনার পর খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোঃ আলী আহাম্মদ খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  দীঘিনালায় দুঃস্থ শীতার্তদের মাঝে সেনাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণ

  শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের জারি করা সার্কুলার প্রত্যাহারসহ ৮দফা দাবীতে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ

  খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত

  খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় হানাদার মুক্তদিবস উপলক্ষে র‌্যালী আলোচনা সভা

  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের উন্নয়ন সুবিধা নিশ্চিত করছেন-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  গুইমারাতে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

  নানিয়ারচরে সাবেক ইউপি সদস্যকে হত্যার প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ সমাবেশ

  খাগড়াছড়ির গুইমারায় অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

  সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও চাঁদাবাজি পর্যটনের বিকাশে বড় অন্তরায়-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  খাগড়াছড়িতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ

  পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে পাহাড়ে ভাতৃঘাতি সংঘাতের অবসান হয়েছে-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?