বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৭, ০৮:০৩:১৪

খাগড়াছড়িতে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মরণ সভা

খাগড়াছড়িতে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মরণ সভা

খাগড়াছড়িঃ-“বল বীর- চির উন্নত মম শির” এই স্লোগানকে সামনে রেখে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে এইচ. এম. পার্বত্য হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের আয়োজনে কলেজে এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যাপক ডাঃ কাজী মোহাম্মদ তোফায়েল আহাম্মদ’র সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজ বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক ও কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য ডাঃ মনোরঞ্জন দেব।
বিশেষ অিতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ আব্দুল লতিফ, সিনিয়র প্রভাষক ডাঃ জ্যোতি বিকাশ চাকমা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অত্র কলেজের হোমিওপ্যাথির নিয়মনীতির বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডাঃ নারায়ন চন্দ্র দে, ডাঃ শেখ মোঃ আলী।
এসময় কলেজের প্রভাষক ডাঃ সম্ভুনাথ চাকমার সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইন্টার্নিং কোর্স সম্পন্ন ডাক্তারগন। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অত্র কলেজের প্রভাষকবৃন্দসহ বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীবৃন্দ ও কলেজ কর্তৃপক্ষের নেতৃবৃন্দ।

এই বিভাগের আরও খবর

  মানিকছড়ি সরকারি কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দুর্নীতি অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

  টাস্কফোর্স কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচিঃ চেয়ারম্যানকে স্মারকলিপি

  দুষ্ট লোকের ফাঁদে পা দিয়ে পাহাড়ের শান্তি ও উন্নয়নকে বাঁধাগ্রস্থ করা যাবেনা-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  দীঘিনালায় পাড়াকর্মী শিক্ষদের ত্রৈমাসিক সমাবেশ

  পাহাড়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বজায় রেখে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে-এ কে এম সাজেদুল ইসলাম

  ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন গুইমারা উপজেলার প্রথম ভাইস চেয়ারম্যান পূর্ণ্য কান্তি ত্রিপুরা

  মাটিরাঙ্গায় সুদমুক্ত ঋণ ১৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা বিতরণ করেছে সমাজসেবা বিভাগ

  দীঘিনালায় এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

  খাগড়াছড়ির গুইমারায় আগুন দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা স্বামীর মৃত্যুদন্ড

  গুইমারাতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

  খাগড়াছড়ি বিএনপি নেতা ও রাজ জামাতার অন্ত্যোষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?