রবিবার, ১৯ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০৯ জুলাই, ২০১৮, ০৯:২৬:২১

দ্বিতীয় দিনের অভিযান শেষ, থাই ‍গুহা থেকে আরও চারজন উদ্ধার

দ্বিতীয় দিনের অভিযান শেষ, থাই ‍গুহা থেকে আরও চারজন উদ্ধার

আন্তর্জাতিকে ডেস্কঃ-থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের চিয়াং রাই প্রদেশের লুয়াং নং নন গুহায় অভিযান চালিয়ে দ্বিতীয় দিনেও চার কিশোরকে নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত গুহা থেকে মোট আটজনকে বের করে আনা হল। দ্বিতীয় দিনের অভিযান সমাপ্ত করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় উদ্ধার অভিযানে যুক্ত এক প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে সিএনএন এর খবরে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে। থাইল্যান্ডের সরকারী সূত্রে এখনো কোন খবর নিশ্চিত করা হয় নি।
এদিকে প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের অভিযান শেষে উদ্ধার হওয়ার সংখ্যা দাঁড়াল ৮। এখনো গুহার ভেতরে ৪ কিশোর ও তাদের কোচসহ মোট ৫ জন আটকে আছে।
সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ১১ টায় দ্বিতীয় দিনের মত অভিযান শুরু করে উদ্ধারকারী ডুবুরিরা। রবিবারের উদ্ধার অভিযানে যাওয়া ডুবুরিরাই এদিন ফের গুহায় প্রবেশ করেন। স্থানীয় সময় বিকেল ৪ টা ২৭ মিনিটে আজকের দিনের প্রথম কিশোরকে গুহা থেকে বের হতে দেখা যায়। তারপর ধারাবাহিকভাবে আরো তিনজনকে বের করে আনে উদ্ধারকারীরা।
গুহা থেকে বের করে আনার পর গুহার প্রবেশমুখে অবস্থানরত অ্যাম্বুলেন্সে করে পাশের ফিল্ড হাসপাতালে নিয়ে যায় স্বাস্থ্য কর্মীরা। তারপর সেখানে প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের হেলিকপ্টারে করে ৬০ কিলোমিটার দূরে চিয়াং রাই শহরের হাসপাতালে নেওয়া হয়।
প্রসঙ্গত, ২৩ জুন বেড়াতে গিয়ে উত্তরাঞ্চলীয় চিয়াং রাই এলাকার থাম লুয়াং নং নন গুহায় আটকা পড়ে ওয়াইল্ড বোয়ার ফুটবল দলের কিশোর ফুটবলাররা। তাদের বয়স ১১ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে। ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ গুহাটি থাইল্যান্ডের অন্যতম দীর্ঘ গুহা। এখানে যাত্রাপথের দিক খুঁজে পাওয়া কঠিন। ভারী বর্ষণ আর কাদায় থাম লুয়াংয়ের প্রবেশ মুখ বন্ধ হয়ে গেলে তারা আটকা পড়ে।
নিখোঁজের পর গুহার পাশে তাদের সাইকেল এবং খেলার সামগ্রী পড়ে থাকতে দেখা যায়। নিখোঁজের নয় দিন পর সোমবার (২ জুলাই) দুইজন বৃটিশ ডুবুরি চিয়াং রাই এলাকার থাম লুয়াং নং নন গুহায় তাদের জীবিত সন্ধান পান। নানা ঘটনার পর রবিবার থেকে তাদের উদ্ধারে অভিযানে নামে দেশটির সরকার। রবিবারের উদ্ধার অভিযান শেষে চারজনকে বের করে আনতে সক্ষম হন তারা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?