শনিবার, ২৩ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৭ জুন, ২০১৮, ০৬:১১:০১

ট্রাম্প-কিম বহু প্রতীক্ষিত বৈঠক; সিঙ্গাপুরের আকাশসীমায় বিধিনিষেধ

ট্রাম্প-কিম বহু প্রতীক্ষিত বৈঠক; সিঙ্গাপুরের আকাশসীমায় বিধিনিষেধ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হচ্ছেন। এদিকে ট্রাম্প-কিম দুই নেতার মধ্যকার বহু প্রতীক্ষিত এ বৈঠককে কেন্দ্র করে তিন দিনের জন্য সিঙ্গাপুরের আকাশসীমায় বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে।
সম্প্রতি দেশটির প্লেন চলাচল কর্তৃপক্ষের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক সিভিল অ্যাভিয়েশন সংস্থা (আইসিএও) ও যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল অ্যাভিয়েশন প্রশাসনও (এফএএ) তাদের ওয়েবসাইটে এই বিবৃতি দিয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়, সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের বিলাসবহুল একটি হোটেলে ১২ জুন ট্রাম্প-কিমের বৈঠক ঘিরে সেদিন ও তার আগে-পরের ১১ ও ১৩ জুন নিরাপত্তাজনিত কারণে আকাশসীমায় প্লেন চলাচলে বিধিনিষেধ থাকবে। এই নির্দেশনার আওতায় সব প্লেনকে গতি কমাতে হবে এবং অন্যান্য কড়াকড়ি মানতে হবে।
এদিকে, উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সাথে এ বৈঠকের ব্যাপারে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ১২ জুনের ওই বৈঠকটি ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলে আশা প্রকাশ করে পুতিন বলেন, আমি আশা করছি যে বৈঠকে উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বৈঠকটি আয়োজনের যে সাহসী ও পরিপক্ক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা থেকে একটি ইতিবাচক ফলাফল আসবে। আমরা সবাই সেই অপেক্ষাতেই রইলাম।
পুতিন আরও বলেন, আমরা দেখতেই পাচ্ছি যে উত্তেজনা হ্রাসে উত্তর কোরীয় নেতৃত্ব অভূতপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে। সত্যি কথা বলতে কি, এটা আমাকে বিস্মিত করেছে।
এদিকে ট্রাম্প-কিম বৈঠকের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ১০ থেকে ১৪ জুন সিঙ্গাপুরের পররাষ্ট্র দপ্তর, যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস, বেশ কিছু হোটেল এবং সেন্তোসা দ্বীপকে বিশেষ অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।
এর আগে হঠাৎ যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ এই বৈঠক নাকচ করা হলেও পিয়ংইয়ং জানিয়েছে 'যেকোন সময়’ তারা আলোচনায় প্রস্তুত রয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?