বুধবার, ১৮ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১৫ মে, ২০১৮, ০৮:০৭:৫৯

গাজায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬০, নীরব সৌদি আরব

গাজায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬০, নীরব সৌদি আরব

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের বিরুদ্ধে গাজা সীমান্তে বিক্ষোভরত লাখো ফিলিস্তিনির উপর গুলিবর্ষণ করে অন্তত ৬০ জনকে হত্যা করেছে ইসরাইলি বাহিনী। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসি’র খবরে বলা হচ্ছে, ২০১৪ সালের পর এতো মৃত্যুমিছিল দেখেনি ফিলিস্তিনবাসী। পিতৃভূমির স্বাধীনতা প্রত্যাশী নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের উপর ইসরাইলি বাহিনীর এ বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠলেও এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মুখে কুলূপ এঁটে রয়েছে মুসলিম বিশ্বের ক্ষমতাশালী দেশ সৌদি আরব।
এর মধ্যে, জাতিসংঘসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও মানবাধিকার সংস্থা জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তর ও গাজায় ইসরাইলি বর্বরতার নিন্দা জানিয়েছে। এছাড়া নিন্দা ও পাল্টা পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কয়েকটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের রাষ্ট্র প্রধানরা। ইসরাইলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও বলা হয়েছে যে, মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তর অনুষ্ঠানে সেদেশে থাকা ৮৬টি দেশের দূতদের আমন্ত্রণ জানানো হলেও, সেখানে উপস্থিত হন মাত্র ৩৩টি দেশের প্রতিনিধিরা।
কায়রোভিত্তিক ২২টি দেশের জোট আরব লিগ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করার আহ্বান জানিয়েছে। একই সঙ্গে সংস্থাটি জেরুজালেমে ইসরাইলের চলমান দখলদারিত্বের বিরোধিতারও আহ্বান জানায়। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনকে মুসলিম বিশ্বের অনুভূতিতে ভয়ঙ্কর আঘাত বলে উল্লেখ করেছে। জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার জেইদ রাদ আল হুসেইন ফিলিস্তিনিদের লক্ষ্য করে ইসরাইলের তাজা গুলিবর্ষণ তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন।
মিসরের বিখ্যাত ইসলাম ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আল-আজহার এর পক্ষ থেকে শান্তিপূর্ণভাবে এই সংকট সমাধানের আহ্বান জানানো হয়েছে। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনের দিনকে লজ্জার দিন হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। টুইটারে এই হত্যাযজ্ঞে ক্ষোভ জানিয়েছেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি। দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ জানিয়েছে, ফিলিস্তিনিরা যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না। তাই এটা অর্থহীন। এছাড়া, ইসরাইল ও যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে তুরস্ক। দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান ইসরাইলকে একটি সন্ত্রাসবাদী রাষ্ট্র হিসেবে আখ্যায়িত করে জানান, গাজায় ইসরাইল যা করছে তা গণহত্যা।
মঙ্গলবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক ডেকেছে কুয়েত। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে দূতাবাস স্থানান্তরের ঘটনায় আন্তর্জাতিক আইন ও জাতিসংঘের বেশ কয়েকটি প্রস্তাব লঙ্ঘিত হয়েছে বলে জানিয়েছে। গাজায় ফিলিস্তিনি হত্যার নিন্দা জানিয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ)। উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জার্মানি।
এর মধ্যে জানা গেছে, ইসরাইলি বাহিনীর ভয়াবহ এ হামলার পরের দিনই ফিলিস্তিন জুড়ে নতুন করে বিক্ষোভ শুরুর প্রস্তুতি চলছে। মঙ্গলবার নাকবা বা বিপর্যয় দিবসে ৭০তম বার্ষিকী পালন করবে ফিলিস্তিনিরা। ১৯৪৮ সালের এইদিনে ফিলিস্তিনের হাজার হাজার মানুষকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে ইসরাইল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। ঐতিহাসিক এই প্রেক্ষাপটে ‘গ্রেট রিটার্ন মার্চ’ কর্মসূচির শেষ দিন পালিত হবে আজ। বিবিসি ও আল-জাজিরা।

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?