বুধবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০১৮, ০১:১৩:২৪

ট্রাম্পের হুমকিকে 'পাগলের' চিৎকার বলে কটাক্ষ উত্তর কোরিয়ার

ট্রাম্পের হুমকিকে 'পাগলের' চিৎকার বলে কটাক্ষ উত্তর কোরিয়ার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছে উত্তর কোরিয়া ও যক্তরাষ্ট্র। চলছে পাল্টাপাল্টি হুমকি ও ভয়ঙ্করসব মহড়া। আর তারই জের ধরে মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়া মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিউক্লিয়ার বাটন ট্যুইটকে কটাক্ষ করে ফের একবার মন্তব্য করেছে। আর সেই মন্তব্যে সরাসরি ট্রাম্পের হুমকিকে পাগল কুকুরের চিৎকার বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদপত্র রোডোং সিনমন মঙ্গলবারে বলা হয়, পিয়ংইয়ং-এর শক্তিতে ভীত আমেরিকা। মার্কিন প্রেসিডেন্টের মানসিক ভারসাম্যও যে ঠিক নেই।
এর আগে, বছরের শুরুতেই আমেরিকার উদ্দেশ্যে পরমাণু বোমা ছোঁড়ার হুমকি দেন উত্তর কোরিয়ার কিম জং উন। হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘‘আমার টেবিলের নিচে পরমাণু অস্ত্র ছোঁড়ার বাটন থাকে। সেটা শুধু টিপে দেওয়ার অপেক্ষা।’’ জবাব দিতে দেরি করেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্যুইটারে তার প্রতিক্রিয়া, ওকে কেউ জানিয়ে দিক আমার টেবিলের নিচেও পরমাণু অস্ত্র ছোঁড়ার বাটন রয়েছে। সেই বাটন অনেক বড় এবং উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রের থেকে তার কার্যকর ক্ষমতা অনেক বেশি।’’
দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী মাসে হতে চলা উইন্টার অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণ যখন শান্তির পথ প্রশস্ত করছিল বলে মনে হচ্ছিল, ঠিক তখনই কিমের এই হুমকি যেন ফের আশঙ্কা জাগিয়ে তুলেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  মিয়ানমারের পাঁচ জেনারেলের উপর অস্ট্রেলিয়ার নিষেধাজ্ঞা

  খুলে দেয়া হল বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতু

  তাইওয়ানে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত-২২

  নাইজেরিয়ায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় নিহত-৫৫

  ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের দুর্ঘটনার দায় নিচ্ছে না কেউ, ক্ষোভে ফুঁসছে অমৃতসর

  ১০-১৫ সেকেন্ডেই ৩০০ মানুষের জমায়েত পরিণত হয় ছিন্ন-ভিন্ন দেহের স্তুপে

  রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে শুনানির অনুরোধ

  নিউ ইয়র্ক টাইমসের অনুসন্ধানঃ ফেসবুকে রোহিঙ্গা নিধনে উসকানি দিয়েছিল মিয়ানমার সেনাবাহিনী

  হারিকেন মাইকেলের আঘাতে নিহত কমপক্ষে-৩০

  মিয়ানমারে শান্তি আলোচনা শুরু

  চীনের সঙ্গে ৫০০ মিলিয়ন ডলারের প্রকল্প বাতিল মিয়ানমারের

  0

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?